ঢাকা, সোমবার 24 September 2018, ৯ আশ্বিন ১৪২৫, ১৩ মহররম ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

ইউপি সদস্যের কান্ড

রামগঞ্জ (লক্ষ্মীপুর) সংবাদদাতা : জেলার রামগঞ্জ উপজেলার ইছাপুর ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য লিটন বিদ্যুৎ সংযোগে চাহিদা অনুযায়ী অতিরিক্ত টাকা না দেওয়ায় একই গ্রামের ওজি বাড়ির মৃত আবুল কালামের বিধবা স্ত্রী ভিক্ষুক  আনোয়ারা বেগমকে পিটিয়ে মারত্মক আহত করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।
পরে বাড়ির লোকজন তাকে উদ্ধার করে রামগঞ্জ সরকারী হাসপাতালে ভর্তি করেন। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার দিবাগত রাতে ওই ভিক্ষুকের বসত ঘরের সামনে। এ ব্যাপারে আনোয়ারা বেগম বাদী হয়ে রামগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ইছাপুর ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ড শিবপুর গ্রামের ইউপি সদস্য মোঃ লিটন গ্রামের বিভিন্ন বাড়ীতে বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়ার নামে এলাকার অর্ধশতাধিক লোকের নিকট থেকে ২০ থেকে ২৫ হাজার টাকা করে উত্তোলন করেন। শিবপুর ওজি বাড়ির জাকির হোসেন, আকবর হোসেন, জসিম, আবু মিয়া, বাসু মিয়া, দুদ মিয়া, মাসুদ আলম, আনোয়ার হোসেন, নসু মিয়াসহ ১২জনের কাছ থেকে প্রথম ধাপে বিদ্যুতের খুটি দেওয়ার নামে ১ লাখ ৩০ হাজার এবং পরবর্তিতে মিটারের জন্য ৬ হাজার টাকা করে আদায় শেষে বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়।
কিন্তু ওই বাড়ির ভিক্ষুক আনোয়ারা বেগম বিভিন্ন স্থান থেকে ধার দেনা ও ভিক্ষা করে ৫ হাজার টাকা দিলেও ১ হাজার টাকা কম দেওয়ায় বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধ করে রাখেন। পরে আনোয়ারা বেগম তার ভাসুরের পরামর্শে রামগঞ্জ বিদ্যু অফিসের ডিজিএম-এর কাছে নালিশ করেন। এতে মেম্বার ক্ষীপ্ত হয়ে  আনোয়ারা বেগমকে গত সোমবার রাতে ঘরে ঢুকে এলোপাতাড়ি কিল, ঘুসি ও বাশ দিয়ে পিটিয়ে মারাত্মক আহত অবস্থায় ফেলে যায়। পরে বাড়ির লোকজন ও বিধবার মেয়েরা এসে তাকে উদ্ধার করে রামগঞ্জ সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ