ঢাকা, সোমবার 10 December 2018, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ২ রবিউস সানি ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

মালদ্বীপের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে বিরোধীদলের বিজয় দাবি

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক:

মালদ্বীপের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে বিরোধী দলের প্রার্থী এবং মালদ্বীভিয়ান ডেমোক্রেটিক পার্টি এর নেতা ইব্রাহিম মোহাম্মদ সোলিহ নিজের বিজয় দাবি করছেন। তবে ক্ষমতায় থাকা প্রেসিডেন্ট ও প্রগ্রেসিভ পার্টি অব মালদ্বীপ এর প্রতিষ্ঠাতা ইয়ামিন আব্দুল গাইয়ুম এখনও নিজের পরাজয় স্বীকার করে নেননি। মালদ্বীপের জাতীয় নির্বাচন কমিশন এখনই নির্বাচনের কোন আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিবে না বলে ধারণা করা হচ্ছে।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলোর বরাতে দ্য ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল জানায়, নির্বাচনে মোহাম্মদ সোলিহ ৫৮ শতাংশ ভোট পেয়ে নির্বাচনে জয়লাভ করছেন।

সুষ্ঠুভাবে ক্ষমতা হস্তান্তরের জন্য তিনি প্রেসিডেন্ট ইয়ামিন আব্দুল গাইয়ুমের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

আল জাজিরা জানিয়েছে, ইতোমধ্যে ৯২ শতাংশ ভোট গণনা সম্পন্ন হয়েছে।

মাঝরাতে ক্যাম্পেইন অফিসের সামনে জড়ো হওয়া সমর্থকদের উদ্দেশ্যে সোলিহ বলেন, আমার বার্তাটি জোরালো ও স্পষ্ট। এখন আশার সময় ও ইতিহাসের অংশ হবার সময়।

মালদ্বীপে রোববারের (২৩ সেপ্টেম্বর) নির্বাচনে ব্যাপক অনিয়ম ও কারচুপির আশঙ্কা করছিলো আন্তর্জাতিক মহল। নির্বাচনের মানদণ্ড বজায় রাখা হয়নি অভিযোগ করে ইউরোপীয় ইউনিয়ন নির্বাচন পর্যবেক্ষক দল পাঠানো থেকে বিরত থেকেছে। এছাড়া, মালদ্বীপ পরিস্থিতিতে নজর রাখছে ভারত ও চীন।

মোহাম্মদ সোলিহ ভারতপন্থী হিসেবে পরিচিত। অন্যদিকে প্রেসিডেন্ট ইয়ামিনের চীনপন্থী।

উল্লেখ্য, প্রেসিডেন্ট ইয়ামিন ২০১৩ সালের এক বিতর্কিত নির্বাচনের মধ্য দিয়ে ক্ষমতায় আসেন। অতঃপর তার পূর্বের প্রেসিডেন্ট ও মালদ্বীভিয়ান ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রতিষ্ঠাতা ও নেতা মোহাম্মদ নাশিদকে সন্ত্রাসবাদের অভিযোগে ২০১৫ সালে ১৩ বছরের সাজা দেওয়া হয়। পরবর্তীতে তাকে, সুযোগ করে দেওয়া হয়েছিলো রাজনৈতিক বিবেচনায় স্বেচ্ছানির্বাসনে যাবার। নির্বাসনে থাকা নাশিদ এবারের প্রেসিডেন্ট  নির্বাচনে তার দলের অপর নেতা মোহাম্মদ সোলিকে সমর্থন দিয়েছেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ