ঢাকা, মঙ্গলবার 25 September 2018, ১০ আশ্বিন ১৪২৫, ১৪ মহররম ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

রংপুরের পীরগঞ্জে করতোয়া নদীর ভাঙনে টুকুরিয়া ইউনিয়নের ৬ গ্রাম হুঁমকির মুখে

রংপুর অফিস : করতোয়া নদীর ভাঙনে রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলায় টুকুরিয়া ইউনিয়নের ৬ টি গ্রামের শত শত পরিবার এখন হুঁমকির মুখে পড়েছে।

প্রকাশ, রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলায় উজান থেকে নেমে আসা করতোয়া নদীর পানি কমতে থাকায় এখন ঐ এলাকার টুকুরিয়া ইউনিয়নের ৬ টি গ্রামের শত শত পরিবার এবং আবাদী জমি ভাঙ্গনের মুখে পড়েছে । ইতিমধ্যেই উপজেলার টুকুরিয়া ইউপির বিছনা, সুজারকুঠি, দক্ষিণ দুর্গাপুর গ্রামের সিংহভাগ করতোয়ার নদী গর্ভে চলে গেছে। আবাদী জমি, বসতবাড়ী হারিয়ে শতাধিক পরিবার আশ্রয়হীন হয়ে পড়েছে। নদীর ভাঙ্গন ঠেকাতে না পারলে অগামী কয়েকদিনের মধ্যেই টুকুরিয়া ইউনিয়নের আরও ৬ টি গ্রাম নদীতে বিলীন হয়ে যাবে বলে এলাকাবাসী অভিযোগ করেছে।

ইউনিয়নেয়র চেয়ারম্যান ও আতংকিত এলাকাবাসী জানান, রংপুর এবং দিনাজপুর জেলার সীমানায় বয়ে যাওয়া করতোয়া নদীতে সাম্প্রতিক বন্যায় উজানের ঢলে পানি বৃদ্ধি পেয়েছে। নদীর নিয়ন্ত্রন বাঁধে পীরগঞ্জ এলাকার বিভিন্ন স্থানে ভেঙে যাওয়ায় টুকুরিয়া ইউনিয়নের কয়েকটি গ্রাম নদী ভাঙ্গনে ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। পানি কমার সাথে নদীটির পাড় ভেঙে দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ উপজেলার মহারাজপুর থেকে গতিপথ পরিবর্তন করে ১ কিলোমিটার  উত্তরে সরে এসে পীরগঞ্জের টুকুরিয়া ইউনিয়নের বিছনা দক্ষিণ দূর্গাপুর গ্রামে আঘাত করছে। আবাদী জমি, বসতবাড়ী নদী গর্ভে চলে গেছে। ফলে শতাধিক পরিবার আশ্রয়হীন হয়েছে। আশ্রয়হীন রশিদা বেগম জানায়, বাপ-দাদার বাড়িঘর ভেঙে নদীর তলদেশে পড়ে গেছে। এখন আমরা অন্যের বাড়িতে অবস্থান করছি। বিছনা গ্রামের রমিছা,  নিরব, মানিক, বকুল, রেজ্জাক জানায়, সারাজীবনের স্বপ্ন দিয়ে বাড়ি করেছি। করতোয়া নদী আর ৪০/৫০ গজ ভাঙলেই আমাদের বাড়ি-ঘর এবং পাকা সড়কের পুরোটাই বিলীন হয়ে যাবে। 

টুকুরিয়া ইউপির চেয়ারম্যারম্যান আতাউর রহমান ম-ল জানান, নদী ভাঙ্গন রোধ করতে না পারলে সুজারকুঠি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং উচ্চ বিদ্যালয়সহ পুরো গ্রাম এবং দুধিয়াবড়ী, পারবোয়ালমারী গ্রাম নিশ্চিহ্ন হয়ে যাবে। নদীর ভাঙন ১ কিলোমিটার উত্তরে সরে এসে  এই ইউনিয়নের কয়েকটি গ্রাম এখন হুমকির মুখে পড়েছে। নদী ভাঙনরোধে রংপুর পানি উন্নয়নবোর্ড, উপজেলা নির্বাহী অফিসার সহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট জানানো হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ