ঢাকা, মঙ্গলবার 25 September 2018, ১০ আশ্বিন ১৪২৫, ১৪ মহররম ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

গভীর সমুদ্রে তিন ট্রলারসহ ৫০ জেলে নিখোঁজ

বরগুনা জেলা সংবাদদাতা : গভীর সমুদ্রে হঠাৎ বৈরী আবহাওয়ার কারণে প্রচন্ড ঝড়ের কবলে পড়ে ট্রলার ডুবির ঘটনায় চারদিন পর দুই ট্রলারসহ ৩৯ জেলের সন্ধান পাওয়া গেছে। রোববার সকাল ১০ টার দিক ভারতের ঝাউতলা নামক স্থান থেকে ট্রলারসহ ৩৯ জেলে রওয়ানা হয়েছে। সোমবার দুপুর নাগাদ তারা পাথরঘাটায় পৌঁঁছাতে পারে। এর আগে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা থেকে শুক্রবার সকাল পর্যন্ত গভীর সমুদ্রে ফেয়ারওয়েবরা, নারিকেলবাড়িয়া, দুবলাসহ একাধিক জায়গায় পৃথক অন্তত ৯টি ট্রলার ডুবে যাওয়ার দুদিন পর শনিবার ভাসমান ১১৩ জেলে উদ্ধার হয়। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত ১৫২ জন জেলে উদ্ধার হয়। বরগুনা জেলা মৎস্যজীবী ট্রলার মালিক সমিতির সভাপতি গোলাম মোস্তফা চৌধুরী এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, বঙ্গোপসাগরে ডুবে যাওয়া ট্রলারের মধ্যে ভারতীয় জলসীমায় অনুপ্রবেশ করে ভারতের ঝাউতলা এলাকা থেকে আজ রোববার সকাল ১০ টার দিকে আলম মোল্লার মালিকানা এফভি মহসিন আউলিয়া ৫ ট্রলারের ২২ ও মো. পনু আকনের মালিকানা এফবি সুজনের ১৭ জন রওয়ানা হয়েছে। তারা সকলেই অক্ষত রয়েছে। এদিকে ট্রলার ডুবির ঘটনায় এখনও তিন ট্রলার সহ ৫০ জন নিখোঁজ রয়েছে। নিখোঁজদের মধ্যে পাথরঘাটা জসিমের মালিকানা এফবি মা ট্রলারের ১৭, হারুণ এর মালিকানা তানজিলা ট্রলারের ১১, ছগির পহলানের মালিকানা এফবি আরমান ট্রলারের ৪ জন ও মহিপুরের জাকিরের মালিকানা এফবি জাহানারা ট্রলারের ১৬। নিখোঁজদের উদ্ধারের জন্য নৌবাহিনী ও কোষ্টগার্ডের যৌথ অভিযান অব্যহত রয়েছে। বাংলাদেশ নৌবাহীনির খুলনার ক্যাম্পে লে. ফরিদ বলেন আমাদের টিম সার্বক্ষণিক উদ্ধার তৎপরতা চালাচ্ছে। কোষ্টগার্ডের পশ্চিম জোনের অপারেশন অফিসার লে. মাহামুদ আলী বলেন আমার সুন্দরবন কেন্দ্রিক সকল ক্যাম্পের সদস্যরা সাগরে অভিযানে রয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ