ঢাকা, শুক্রবার 5 October 2018, ২০ আশ্বিন ১৪২৫, ২৪ মহররম ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

কুমিল্লায় বইপোকাদের প্রাণবন্ত আড্ডা

বই জ্ঞানের প্রতীক। নিঃস্বার্থ বন্ধুর প্রতীক। জীবনের প্রিয় বন্ধুর তালিকায় বইয়ের অবস্থান সবার উপরে। বই মানুষকে দেয় উদার হওয়ার শিক্ষা, শেখায় ভালো মানুষ হতে, আরো শেখায় ভালোবাসতে। বই সত্য সুন্দর আনন্দময় অনুভ’তিতে মনকে আলোড়িত করে। 

 বই পড়ার বিরল আনন্দ ও আগ্রহের কথা মাথায় রেখে ভার্চুয়ার জগতে আত্মপ্রকাশ করলো ‘কুমিল্লার বইপোকা’ গ্রুপের। গত ২৮ সেপ্টেম্বর শুক্রবার ¯িœগ্ধ শরতের পড়ন্ত বিকেলে কুমিল্লা নজরুল ইন্সটিটিউটের মুক্তমঞ্চ মুখরিত হলো বইপোকাদের মিলনমেলায়। কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া শতাধিক বইপ্রেমী তরুণ-তরুণীদের পদচারণায় মুখর হয়ে ওঠে নজরুল ইন্সটিটিউট চত্বর। তরুণ লেখক আর পাঠকের আড্ডাস্থল হয়ে ওঠে ইন্সটিটিউটের মুক্তমঞ্চ। কবিতা পাঠ, আবৃত্তি, গল্পবলা, প্রতিযোগিতায় বইপোকাদের আড্ডাখানা প্রাণবন্ত হয়ে ওঠে। 

বাংলা সাহিত্যে বিখ্যাত দুই কবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, কাজী নজরুল ইসলামের পদচারণায় মুখর ছিল উপমহাদেশের এই প্রাচীন জনপদ সমতট অঞ্চল কুমিল্লা। এই বৃহত্তর কুমিল্লারই কৃতী সন্তান বুদ্ধদেব বসু, তিতাশ চৌধুরী ও কবি আল মাহমুদ। 

সাহিত্য-সংস্কৃতিতে কুমিল্লার গৌরব ছিল বিশ^ময়। কুমিল্লাকে আবার নতুন সাজিয়ে তুলতে এবং শিল্প-সাহিত্য ও সংস্কৃতিতে অগ্রণী ভূমিকা রাখতে কুমিল্লার বইপোকাদের প্রতি আহবান জানান এই সময়ের তরুণ লেখক ও গবেষক সাহিত্য পত্রিকা কাঠপেন্সিল এর সম্পাদক সীমান্ত আকরাম। তিনি বইপোকাদের করণীয়, লেখালেখিতে নিজেদের ভূমিকা, মাসিক সাহিত্য সভা, বুক রিভিউ ও নতুন নতুন বই সংগ্রহ করা ইত্যাদি বিষয়ে দিকনির্দেশনা তুলে ধরেন।  

আড্ডায় আরো কথা বলেন, কুমিল্লা কোতয়ালীর এএসপি কবি ইমরান হোসাইন তানভীর ও তরুণ কবি নিসর্গ মিরাজ। আড্ডায় মৌখিক কুইজ পর্বে অংশগ্রহণকারীদের পুরস্কার হিসেবে বই প্রদান করা হয়। 

এ আড্ডার আয়োজনে ছিলেন তুহিন মাজহার, মারুফ আহমেদ, ফখরুল ইসলাম, মাসুদ খান, তারেক উল হাসান, ইমাম হাসান, ডেইজি নূর, রেজাউল ইসলাম, তামান্না জাহান তন্নী, ইরফান তানভীর, (এডমিন প্যানেল, কুমিল্লার বইপোকা) প্রমুখ।

-সীমান্ত আকরাম

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ