ঢাকা, শুক্রবার 5 October 2018, ২০ আশ্বিন ১৪২৫, ২৪ মহররম ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

ভিকটিম হিজাবী নারীর পক্ষে কানাডার কুইবেক সুপ্রিম কোর্টের যুগান্তকারী রায়

রানিয়া আল-আলাউলের

৪ অক্টোবর, গ্লোবাল নিউজ ডটকম : সম্প্রতি কানাডার কুইবেক রাজ্যের সুপ্রিম কোর্ট হিজাবের পক্ষে এক যুগান্তকারী রায় দেয়। কুইবেকের এই আদালত একজন হিজাবী মুসলিম নারীর পক্ষে রায় দিয়েছে, যিনি তিন বছর পূর্ব থেকে কানাডার আরেকটি নিম্ন আদালতের নির্দেশ অমান্য করে আসছিলেন।

কুইবেকের সুপ্রিম কোর্ট রানিয়া আল-আলাউল নামক হিজাবী মুসলিম নারীর হিজাবের পক্ষে রায় দিতে গিয়ে বলেন, কুইবেকের আইন ধর্মীয় উদ্দেশ্যে পরিধান করা কোনো নারীর মাথা ঢেকে রাখার পোশাকের বিরুদ্ধে যায় না, যদি না তা জনস্বার্থ বিরোধী কোনো কাজে ব্যবহৃত হয়।

প্রসঙ্গত, ২০১৫ সালে রানিয়া আল-আলাউল নামক ওই মুসলিম নারী তার গাড়ি বাজেয়াপ্ত করার বিরুদ্ধে আদালতে একটি মামলা আনয়ন করেছিলেন। আদালতের বিচারক ইলিয়ানা মারেনগো রানিয়া আল-আলাউলকে শুনানির পূর্বে তার হিজাব খুলে ফেলার নির্দেশ দিয়েছিলেন কিন্তু আলাউল তাতে রাজি না হওয়ায় আদালত তখন মামলাটি শুনানি করতে রাজি হননি।

ওই সময় সবিচারক মারেনগো ভিকটিম রানিয়া আল-আলাউলের উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘যদিও মামলাটির শুনানি করা আবশ্যক কিন্তু একই সাথে রানিয়া আল-আলাউলের পোশাক মামলা শুনানি করার জন্য উপযুক্ত নয়।’

পরবর্তীতে রানিয়া আল-আলাউলের নিযুক্ত আইনজীবী নিম্ন আদালতের মামলাটি শুনানি করতে অস্বীকৃতির বিরুদ্ধে ২০১৬ সালে কুইবেকের সুপ্রিম কোর্টে আপীল দায়ের করেন।

কুইবেকের সুপ্রিম কোর্ট চলতি মাসের ৩ তারিখে নিম্ম আদালতের রায়টি বাতিল করে দিয়ে রানিয়া আল-আলাউলকে যথাযথ সুবিচার দিতে অস্বীকার করার সিদ্ধান্তকে অবৈধ ঘোষণা করেন।

সুপ্রিম কোর্ট একই সাথে রানিয়া আল-আলাউলের নিজস্ব ধর্ম বিশ্বাস অনুযায়ী পোশাক পরিধানের অধিকার রয়েছে বলে মত দেন।

রানিয়া আল-আলাউল কর্তৃক জুলিয়াস গ্রেই নামের আইনজীবী বলেন, ‘আমি আদালতের উভয় সিদ্ধান্তে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছি।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ