ঢাকা, বৃহস্পতিবার 11 October 2018, ২৬ আশ্বিন ১৪২৫, ৩০ মহররম ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

জাকির নায়েকের প্রত্যার্পণে নারাজ মালয়েশিয়া ॥ বেকায়দায় দিল্লী

১০, অক্টোবর, পার্সটুডে : প্রখ্যাত ইসলাম প্রচারক জাকির নায়েককে ভারতের কাছে প্রত্যাবর্তন করতে অস্বীকার করেছে কুয়ালামপুর। এর মাধ্যমে কূটনৈতিক মঞ্চে ভারতকে ফের বড়সড় ধাক্কা দিলো মালয়েশিয়া৷ এই ইসলামি চিন্তাবিদকে ভারতে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিতে আপাতত নারাজ মাহাথির মোহাম্মদের দেশটি৷ এবার আদালতের রায়েই হতে পারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত৷ ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজকে এমনটাই জানিয়েছেন মালয়েশিয়ার এক মন্ত্রী৷

ভারতে বর্তমান সরকারের আমলে আর্থিক প্রতারণা ও সন্ত্রাসবাদে মদত দেয়ার অভিযোগ আনা হয়েছে জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে৷ তার বিরুদ্ধে তদন্ত করছে এনআইএ ও ইডি৷ ২০১৬ সালে ভারত ত্যাগ করেছিলেন জাকির নায়েক। তারপরই মালয়শিয়ায় আশ্রয় নেন তিনি৷ গত জানুয়ারি মাসে ওই ইসলামি চিন্তাবিদের প্রত্যার্পণ চেয়ে মালয়েশিয়ার কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে আবেদন জানায় ভারত সরকার৷ সম্প্রতি ভারত সফরে এসে মালয়েশিয়ার মানবসম্পদ মন্ত্রী এম কুলা সাগারান জানিয়েছিলেন, জাকির নায়েককে ফেরত পাঠানোর আবেদন করেন সুষমা স্বরাজ৷ তবে এই বিষয়ে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি৷ তিনি আরো জানান, জাকিরের প্রত্যার্পণের বিষয়টি আদালতের পাঠাতে পারে সরকার৷ সেক্ষেত্রে আদালতের রায়ই শেষ কথা হবে৷ তবে ভারতে ফেরত যাওয়ার আদেশ দিলে, সেই রায়কে চ্যালেঞ্জ জানাতে পারবেন জাকির নায়েক৷

বিশেষজ্ঞদের মতে, জাকির নায়েককে ফেরত পাঠাতে মোটেও রাজি নয় মালেশিয়া৷ আদালতের দ্বারস্থ হওয়া একটি চাল মাত্র৷ ওই দেশের নেতা-মন্ত্রীদের সঙ্গে যথেষ্ট গভীর সম্পর্ক রয়েছে জাকির নায়েকের৷ আগেই সেদেশের প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মহম্মদ বলেছিলেন, যতদিন পর্যন্ত জাকির নায়েক মালয়েশিয়ায় সমস্যা সৃষ্টি না করছেন ততদিন তাকে ভারতে ফেরানোর কথা ভাবছে না সরকার। কারণ জাকির নায়েককে ইতিমধ্যেই স্থায়ী নাগরিকত্ব দিয়ে ফেলেছে মালয়েশিয়া।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ