ঢাকা, বৃহস্পতিবার 11 October 2018, ২৬ আশ্বিন ১৪২৫, ৩০ মহররম ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

গ্রেনেড হামলা মামলায় দণ্ডপ্রাপ্তরা কে কোথায়?

স্টাফ রিপোর্টার : ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ ১৮ আসামী রয়েছেন আইনশৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনীর ধরাছোঁয়ার বাইরে। তাদের মধ্যে নয় জন যুক্তরাজ্যসহ বিভিন্ন দেশে পলাতক।
২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার ঘটনায় দায়ের করা দু’টি মামলায় আসামী ৫২ জন। এদের মধ্যে ৩১ আসামী কারাবন্দী থাকলেও পলাতক আছেন ১৮ জন। যাদের মধ্যে ৭ জনের অবস্থান সম্পর্কে নিশ্চিত নন আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।
২০০৮ সালে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে জামিনে মুক্ত হয়ে চিকিৎসার জন্য লন্ডনে যান বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান। এছাড়া বিএনপির অপর শীর্ষ নেতা হারিছ চৌধুরীও দীর্ঘদিন ধরে অবস্থান করছেন যুক্তরাজ্যে। সংযুক্ত আরব আমিরাতে অবস্থান করছেন বিএনপি নেতা মোফাজ্জল হোসেইন কায়কোবাদ ও হরকাতুল জিহাদ নেতা জাহাঙ্গীর বদর। যুক্তরাষ্ট্রে পালিয়ে আছেন তৎকালীন ডিজিএফআই’র কর্মকর্তা অবসরপ্রাপ্ত মেজর জেনারেল এ টি এম আমিন। চাকরিচ্যুত আরেক কর্মকর্তা লে. কর্নেল সাইফুল ইসলাম জোয়ারদার আছেন কানাডায়। এছাড়া মাওলানা তাজউদ্দিন ও তার ভাই বাবু ওরফে রাতুল বাবু আছেন দক্ষিণ আফ্রিকায়। পরিবহণ ব্যবসায়ী মোহাম্মদ হানিফের বর্তমান অবস্থান থাইল্যান্ডে।
এছাড়া মামলার অপর দুই আসামী আনিসুল ইসলাম মোরসালিন ও মুহিবুল ইসলাম মুত্তাকিন প্রায় ১১ বছর ধরে কারাবন্দি আছেন প্রতিবেশী দেশ ভারতে। ২০০৬ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লিতে অস্ত্র ও বিস্ফোরকসহ গ্রেফতার হওয়া এই দুই ভাইকে এখন ফিরিয়ে আনতে পারেনি সরকার।
অন্য আসামীদের মধ্যে হরকাতুল জিহাদ নেতা শফিকুর রহমান, আব্দুল হাই, দেলোয়ার হোসেন, খলিলুর রহমান ও ইকবালের অবস্থান অজানা আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে। এছাড়া, পুলিশ কর্মকর্তা খান সাঈদ হাসান ও ওবায়দুর রহমান কোথায় আছেন তাও জানে না পুলিশ।
পলাতক আসামীদের ফিরিয়ে আনতে ইন্টারপোলের সহায়তা চাওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ