ঢাকা, সোমবার 15 October 2018, ৩০ আশ্বিন ১৪২৫, ৪ সফর ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

আল্লামা রুমি সোসাইটির সেমিনারে শামসুদ্দীন শিশির : বিশ্ব শান্তি প্রতিষ্ঠায় ধৈর্য্য ধারণের বিকল্প নেই

সুফিবাদ ভিত্তিক গবেষণাধর্মী সংগঠন আল্লামা রুমি সোসাইটির উদ্যোগে গত ১১ অক্টোবর ২০১৮ “সবর তিতা হলেও ওঠার ফল মিঠা” শীর্ষক ৩১৫তম মাসিক সেমিনার লালখান বাজারস্থ রুহ আফজা কুঠির প্রাঙ্গণে সংগঠনের মহাসচিব সৈয়দ মুহাম্মদ সিরাজ উদ্ দৌল্লাহ’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। সেমিনারে প্রধান অতিথি ছিলেন শিক্ষা চিন্তক, গবেষক ও গর্ভ: টিচার্স ট্রেনিং কলেজ’র প্রশিক্ষক শামসুদ্দীন শিশির। বাংলার রুমি সৈয়দ আহমদুল হক (রহ.) কর্তৃক লিখিত মূল প্রবদ্ধ পাঠ করেন এড. সৈয়দ মুহাম্মদ ইমরান খান। বিশেষ অতিথি ছিলেন কিষোয়ান গ্রুপের পরিচালক নজরুল ইসলাম মানিক, সমাজকর্মী নোমান উল্লাহ বাহার, কবি মিফতাহুল ইসলাম, ইকো ফ্রেন্ডস’র সাংগঠনিক সম্পাদক কাইয়মুর রশিদ বাবু, শিল্পী হারুন উর রশিদ, সংগঠক বোরহান উদ্দিন গিফারী, হাফেজ মুহাম্মদ ইদ্রিচ, ছড়াকার মীর মনিরুল ইসলাম রফিক প্রমুখ। সেমিনারে শামসুদ্দীন শিশির বলেন, বর্তমান সমাজ বাস্তবতায় মানুষ যেভাবে অসহিষ্ণু, প্রতিহিংসা পরায়ণ হয়ে পড়েছে, তা থেকে উত্তরণে ধৈর্য্য ধারণ প্রয়োজন। বিশ্বব্যাপী আন্তঃধর্মীয় সম্প্রীতির উজ্জল দৃষ্টান্ত স্থাপন ও একটি সার্বজনীন অসাম্প্রদায়িক সমাজ প্রতিষ্ঠায় আল্লামা রুমির অবদান অনস্বীকার্য। বর্তমান নানামুখী সমস্যায় জর্জরিত বিশ্বে কাঙ্খিত শান্তি আনয়নে আল্লামা জালালুদ্দিন রুমির আদর্শ অনুসরণপূর্বক ধৈর্য্য ধারণের বিকল্প নেই। এছাড়া তিনি সুফীবাদের নিবিড় চর্চায় নিবেদিত সংগঠন আল্লামা রুমি সোসাইটির ভূয়সী প্রশংসা করেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ