ঢাকা, সোমবার 15 October 2018, ৩০ আশ্বিন ১৪২৫, ৪ সফর ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

ঘরে বসে বিল তৈরী করায় গ্রাহক হয়রানির শিকার

তাড়াশ (সিরাজগঞ্জ) সংবাদদাতা: সিরাজগঞ্জ পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি-১ এর তাড়াশ জোনাল অফিসের মিটার রিডাররা ঘরে বসে মন গড়া বিল তৈরী করায় তাড়াশ উপজেলার প্রায় ৫০ হাজার গ্রাহক আর্থিকসহ নানা প্রকার ব্যাপক হয়রানির শিকার হচ্ছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। তাড়াশ উপজেলার বারুহাস ইউনিয়নের দিঘড়িয়া গ্রামের বাসিন্দা এ্যাডভোকেট আব্দুল হাই আলহাদীসহ উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের শতশত গ্রাহক জানান, সিরাজগঞ্জ পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি-১ এর তাড়াশ জোনাল অফিসের মিটার রিডাররা ঘরে বসে মন গড়াভাবে বিল তৈরী করায় আমরা মাসের মাস আর্থিকসহ নানা প্রকার ব্যাপক হয়রানির শিকার হচ্ছি। যেমন কোন মাসে একই গ্রাহকের বিল আসে ৫০০ টাকা আবার কোন মাসে বিল আসে ৬ হাজার টাকা। তারা আরো জানান, তাড়াশ উপজেলায় প্রায় ৫০ হাজার বিদ্যুৎ গ্রাহক থাকলেও মিটার রিডার আছে মাত্র ১৫ জন। এ কারণেও তারা ঘরে বসে বিল তৈরী করেন। এর সাথে জড়িত আছেন সিরাজগঞ্জ পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি-১ এর কিছু অসাধু কর্মকর্তা। এ কারণেই ঘটনা গুলো তাড়াশ বিদ্যুৎ অফিসের কর্মকর্তাদের জানালে তারা তেমন কোন গুরুত্ব দেন না।
এ ঘটনাগুলো নিয়ে তাড়াশ উপজেলার হাজার হাজার বিদ্যুৎ গ্রাহকের মধ্যে চরম ক্ষোভ ও উত্তেজনা বিরাজ করছে। এ নিয়ে যেকোন সময় অঘটনও ঘটতে পারে বলে বিভিন্ন সূত্র জানিয়েছে। কিন্তু এ গুলো দেখার কেউ নেই। এ ব্যাপারে সিরাজগঞ্জ পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি-১ এর জেনারেল ম্যানেজার ও তাড়াশ জোনাল অফিসের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা কথা বলতে নারাজ। তাড়াশ পল্লিবিদ্যুত অফিসের সহকারী জোনাল অফিসার মাহবুব বলেন,ঘরে বসে বিল তৈরি করার সুযোগ নেই। তারপরও কোন অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ