ঢাকা, শুক্রবার 16 November 2018, ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

ডা. জাফরুল্লাহর বিরুদ্ধে এবার চাঁদাবাজির মামলা

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক:

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলার পর জমির বিরোধ, চাঁদা দাবি, ভাঙচুর ও হত্যার হুমকির অভিযোগেও মামলা হয়েছে।

আশুলিয়ার পাথালিয়ায় জমি বিক্রিতে বাধ্য করার চেষ্টা এবং এক কোটি টাকা চাঁদা দাবির অভিযোগ এনে মানিকগঞ্জের মোহাম্মদ আলী নামে এক ব্যক্তি সোমবার রাতে মামলাটি করেন।

আশুলিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রেজাউল হক জানান, এ মামলায় গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি বোর্ডের সদস্য জাফরুল্লাহসহ মোট ৪ জনকে আসামি করা হয়েছে। 

এর আগে সময় টিভির এক আলোচনা অনুষ্ঠানে সেনাপ্রধানকে নিয়ে মিথ্যা তথ্য দেওয়ার অভিযোগে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা করা হয়।

মোহাম্মদ আলী জানান, কয়েক বছর আগে পাথালিয়া মৌজায় তারা তিনজন মিলে ৪.২৪ একর জমি কেনেন। পরে সেখানে কাটাতারের বেড়া দিয়ে সীমানা প্রাচীর নির্মাণ ও টিন শেড ঘর তৈরিসহ গাছ রোপণ করে রেখে দেয়। তবে বেশ কিছুদিন ধরে জাফরুল্লাহর লোকজন ওই জমি দখল করার চেষ্টা করছিল। তারা নাম মাত্র মূল্যে জমি বিক্রি করে দেওয়ার জন্য একাধিকবার চাপ দেয়। এসব ঘটনা তিনি আশুলিয়া থানায় একাধিক জিডিও দায়ের করেছেন। সর্বশেষ রবিবার (১৪ অক্টোবর) তিনিওই জমিতে গেলে জাফরুল্লাহর লোকজন তাদের কাছে আবারও জমি বিক্রি করে দেওয়ার জন্য নির্দেশ দেন। একপর্যায়ে তিনি জমি বিক্রি করতে রাজি না হওয়া তার কাছে এক কোটি টাকা চাঁদা দাবি করেন। তবে চাঁদার টাকাও দিতে না চাইলে ক্ষিপ্ত হয়ে গিয়ে সীমানা প্রাচীরর কাটা তারের বেষ্টনী, লোহার সাইনবোর্ড ও মূল ফটক ভেঙে নিয়ে যায় তারা। পরে এ ঘটনায় সোমবার গভীর রাতে আশুলিয়া থানায় তিনি একটি মামলা দায়ের করেন।

মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে আশুলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রিজাউল হক দিপু বলেন, ‘এ ঘটনায় মোহাম্মদ আলী নামে এক ব্যক্তি চাঁদাবাজির অভিযোগে আশুলিয়া থানায় মামলা দায়ের করেছেন। মামলাটি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ