ঢাকা, সোমবার 29 October 2018, ১৪ কার্তিক ১৪২৫, ১৮ সফর ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

মামুনুলের গোলে মুক্তিযোদ্ধাকে হারালো আবাহনী

স্পোর্টস রিপোর্টার : ফেডারেশন কাপ ফুটবল টুর্নামেন্টে জয় দিয়েই সূচনা করলো ঢাকা আবাহনী লিমিটেড। গতকাল রোববার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে তারা ১-০ গোলে মুক্তিযোদ্ধা সংসদকে হারিয়েছে। বিজয়ী দলের পক্ষে একমাত্র গোলটি করেন মিডফিল্ডার মামুনুল ইসলাম। প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ম্যাচের প্রথমার্ধ গোলশূন্য ড্র ছিল। 

জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক মিডফিল্ডার মামুনুল ইসলাম দীর্ঘ ১০ বছর পর ঢাকা আবাহনীতে ফিরেছেন। আর ফিরেই তিনি দলের জয়ের নায়ক। মামুনুলের একমাত্র গোলে ফেডারেশন কাপে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়া চক্রকে হারিয়েছে বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। ‘সি’ গ্রুপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে শুরু থেকে বল দখলের লড়াইয়ে এগিয়েছিল আবাহনী। তবে বিরতির আগে তেমন সুযোগ পায়নি। প্রথমার্ধে আবাহনীর বলার মতো সুযোগ একটাই। ৩৫ মিনিটে হাইতির স্ট্রাইকার কেরভেন্স বেলফোর্টের পাস বক্সের ভেতরে পেলেও লক্ষ্যভেদ করতে পারেননি নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড সানডে চিজোবা।৪৩ মিনিটে জাপানি মিডফিল্ডার ইয়োসুকে কাতোর পাস থেকে আইভরি কোস্টের ফরোয়ার্ড বাল্লো ফামুসার শট ক্রসবার উঁচিয়ে গিয়ে হতাশ করেছে মুক্তিযোদ্ধাকেও। বিরতির পর আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে জমে ওঠে লড়াই। ৪৭ মিনিটে আবাহনীর দক্ষিণ কোরিয়ান মিডফিল্ডার মিন হিয়ক কো’র শট চলে যায় সাইডবার ঘেঁষে। পরের মিনিটে মুক্তিযোদ্ধার মিডফিল্ডার মোহাম্মদ সোহেলের জোরালো শট বাধা পায় পোস্টে। আবাহনী জয়সূচক গোলটি পায় ম্যাচের ৬৩ মিনিটে। বেলফোর্টের লব থেকে সানডের হেড পেয়ে যান বক্সের ভেতরে থাকা মামুনুল। এই অভিজ্ঞ মিডফিল্ডারের বাঁ পায়ের দুরন্ত ভলি আশ্রয় নেয় মুক্তিযোদ্ধার জালে ১-০।গোলের পর ব্যবধান বাড়ানোর দুটো চমৎকার সুযোগ পেয়েছিল আবাহনী। 

কিন্তু বেলফোর্ট এবং নাবিব নেওয়াজ জীবনের ব্যর্থতায় গোল পায়নি চ্যাম্পিয়নরা।দলের জয়ে মূল্যবান গোল করে দারুণ খুশি মামুনুল। ম্যাচ সেরা এই ফুটবলার  খেলা শেষে বলেছেন, ‘১০ বছর পর আবাহনীতে ফিরেই গোল করে খুব ভালো লাগছে। গোলটার পেছনে সবচেয়ে বড় অবদান সানডের। সামনে আরও ভালো খেলতে চাই।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ