ঢাকা, শুক্রবার 16 November 2018, ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

উদ্বোধনী ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ

সংগ্রাম অনলাইন : আগামীকাল শুক্রবার শুরু হতে যাচ্ছে আইসিসি নারী ওয়ার্ল্ড টি-টোয়েন্টি প্রতিযোগিতার অষ্টম সংস্করণ। উদ্বোধনী ম্যাচে দ্বীপরাষ্ট্র গায়েনার স্টেডিয়ামে আয়োজক ও বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে খেলবে বাংলাদেশের মেয়েরা।

‘এ’ গ্রুপের ম্যাচে বাংলাদেশ আগামী ১২ নভেম্বর ইংল্যান্ড, ১৪ নভেম্বর শ্রীলঙ্কা এবং ১৮ নভেম্বর দক্ষিণ আফ্রিকার মুখোমুখি হবে।

এর আগে ১০ দলের বিশ্ব প্রতিযোগিতাকে সামনে রেখে গায়েনায় গত ৪ নভেম্বর প্রস্তুতি ম্যাচে আয়ারল্যান্ডকে ৬ উইকেটে হারিয়েছে বাংলাদেশ। ৭ নভেম্বর পাকিস্তানের কাছে ৮ রানে হারে বাংলাদেশ নারী দল।

আইসিসি ওয়ার্ল্ড টি-২০ র‌্যাংকিয়ে ৯ নম্বর অবস্থানে রয়েছে বাংলাদেশের মেয়েরা।

চলতি বছরে জুলাইয়ে নেদারল্যান্ডে অনুষ্ঠেয় আট দেশীয় কোয়ালিফায়ার টুর্নামেন্টে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয় বাংলাদেশ। ফাইনাল ম্যাচে আয়ারল্যান্ডকে ২৫ রানে হারায় টাইগ্রেসরা।

এর আগে জুনে মালয়েশিয়ায় অনুষ্ঠেয় ছয় দেশীয় এশিয়া কাপ টি-২০ শিরোপা ঘরে তোলে বাংলাদেশের নারীরা। একই মাসে ৩ ম্যাচের টি২০ সিরিজে স্বাগতিক আয়ারল্যান্ডকে ২-১ ব্যবধানে হারায় লাল-সবুজরা।

এশিয়া কাপে শক্তিশালী ভারতকে দুইবার হারায় বাংলাদেশ। এছাড়া পাকিস্তানকেও হারায় টাইগ্রেসরা।

এ পর্যন্ত ওয়ার্ল্ড টি-২০তে কোনো জয় না পেলেও এশিয়া কাপের শিরোপা জয় অনুপ্রেরণা দিচ্ছে সালমা বাহিনীকে।

ক্যারিবীয় দ্বীপপুঞ্জে চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় ইতিমধ্যে সকল প্রস্তুতি শেষ করেছে বাংলাদেশ নারী দল।  

এশিয়া কাপে সাফল্যের কথা স্মরণ করে বাংলাদেশের তারকা অলরাউন্ডার রুমানা আহমেদ বলেন, ‘এশিয়া কাপ আমাদের হাতে, কোয়ালিফায়ার ট্রফিও আমাদের হাতে। সবকিছু ভাল যাচ্ছে। আমরা তাই এখন আত্মবিশ্বাসী।’

স্পিন সবসময়ই বাংলাদেশ দলের শক্তির জায়গা। র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষ ১০জন স্পিন বোলারের মধ্যে দুইজনই বাংলাদেশের। লেগ-স্পিনার রুমানা ৭ নম্বরে এবং বাঁহাতি স্পিনার নাহিদা আক্তার রয়েছেন ৯ নম্বরে।

এছাড়া দলে রয়েছে আরেক লেগ-স্পিনার ফাহিমা খাতুন, যিনি নারী ওয়ার্ল্ড টি-টোয়েন্টি কোয়ালিফায়ার প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশের হয়ে প্রথম হ্যাটট্রিক করেন। ফলে সংযুক্ত আরব আমিরাতকে ৮ উইকেটে হারিয়ে সেমিফাইনালে পৌঁছে বাংলাদেশ।

ফর্মে রয়েছে অফ স্পিনার খাদিজা তুল কুবরা এবং সালমা।  নতুন বোলার জাহানারা আলম আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে দেশের হয়ে প্রথম পাঁচ উইকেট শিকারীর (৫/২৮) তালিকায় নাম লেখান। কয়েক সপ্তাহ পর ওই তালিকায় আরও নাম লেখান পান্না ঘোষ (৫/১৬)।

বাংলাদেশ নারী দলের কোচ অঞ্জু জাইন মনে করেন, তাদের বোলারদের আক্রমণ এবং গতির বিচিত্রতা তাদের বোলিংভাগকে শক্তিশালী করেছে।

এদিকে ব্যাটিংয়েও ভালো করছে বাংলাদেশের মেয়েরা। চলতি বছর অর্ধ-শতক করেছেন ফারগানা হক ও শামিমা সুলতানা। দলের প্রয়োজনে যেকোনো সময় নিজেদের সামর্থের প্রমাণ দেখান বাংলাদেশ নারী দল।

ওয়ার্ল্ড টি-২০তে বাংলাদেশ দল: সালমা খাতুন (অধিনায়ক), রুমানা আহমেদ, জাহানারা আলম, ফারগানা হক, খাদিজা তুল কুবরা, ফাহিমা খাতুন, আয়েশা রহমান, শামীমা সুলতানা (উইকেটরক্ষক), নাহিদা আক্তার, পান্না ঘোষ, রীতু মনি, সানজিদা ইসলাম, নিগার সুলতানা, লতা মন্ডল ও শারমিন আক্তার।

স্ট্যান্ড-বাই: শারমিন সুলতানা, সূর্য আজমিন, শায়লা শারমিন ও সুলতানা খাতুন। সূত্র: ইউএনবি। 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ