ঢাকা, শনিবার 19 October 2019, ৪ কার্তিক ১৪২৬, ১৯ সফর ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

আকস্মিক তফসিল ঘোষণা একতরফা নির্বাচনের ইঙ্গিত: রিজভী

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক:

চলমান রাজনৈতিক সংকট সমাধান না হওয়ার আগেই নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা একতরফা নির্বাচন অনুষ্ঠানের ইঙ্গিত বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্মমহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। 

আজ শুক্রবার (৯ নভেম্বর) সকালে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির দলীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন রিজভী।

তিনি বলেন, পরিবেশ তৈরি না করে নির্বাচন কমিশন জাতীয় নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেছে। সংলাপে কোন সমাধান না আসলেও কেবল আওয়ামী লীগকে একতরফা সুবিধা দিতে এই আয়োজন করেছে ইসি। তবে, এখনও নির্বাচন পিছিয়ে দেবার সুযোগ রয়েছে। এতে আইনের কোনো লঙ্ঘন হবেনা।

বিএনপির সিনিয়র যুগ্মমহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, ‘রাজনৈতিক সংকট সমাধানের আগেই আকস্মিকভাবে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা একতরফা নির্বাচন অনুষ্ঠানেরই সুস্পষ্ট ইঙ্গিত। সকল বিরোধী দলের দাবি ছিল সমতল মাঠ এবং সুষ্ঠু রাজনৈতিক পরিবেশ নিশ্চিত করে তফসিল ঘোষণা দেওয়া।’

তিনি বলেন, ‘এখনও পর্যাপ্ত সময় রয়েছে নির্বাচন কমিশনের হাতে। রাজনৈতিক দলগুলোর অনুরোধে নির্বাচন পিছিয়ে দিলে আইনের কোনো ব্যত্যয় ঘটবে না।’

সংলাপে নেতাকর্মীদের গ্রেফতার না করতে প্রধানমন্ত্রীর দেয়া প্রতিশ্রুতি রক্ষা করেননি উল্লেখ করে রিজভী বলেন, তিনি জাতিকে যেভাবে মিথ্যা আশ্বাস দেন, ঐক্যফ্রন্ট নেতাদেরকেও তেমন আশ্বাস দিয়েছেন। তার আশ্বাসের পর নেতাকর্মীদের গ্রেফতার আরো বেড়েছে।

নির্বাচনে সবার জন্য লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরি না করায় সরকার ও নির্বাচন কমিশনের কঠোর সমালোচনা করেন তিনি। রিজভী বলেন, সরকার কমিশনকে ব্যবহার করে আবারো সেই পুরনো পথে হাঁটছে। তবে দেশের জনগণ এবার আর কোনো ৫ জানুয়ারি মার্কা নির্বাচন দেখতে চায় না।

এ সময়, সরকারের প্রতিহিংসায় খালেদা জিয়ার জীবন চরম নিরাপত্তাহীনতায় আছে বলে দাবি করেন বিএনপির এ নেতা। তিনি বলেন, খালেদা জিয়ার জন্য গঠিত মেডিক্যাল বোর্ডের ছাড়পত্র ছাড়াই তাকে কারাগারে নেয়া হয়েছে। এটি তার ওপর নানামুখী চাপেরই একটি অংশ। সরকার নিজ উদ্দেশ্য সাধনে বেগম জিয়ার ওপর নিষ্ঠুর অমানবিক আচরণের মাত্রা দিন দিন বাড়িয়ে যাচ্ছে। অবিলম্বে বিএনপি চেয়ারপারসনের মুক্তি ও সুচিকিৎসা নিশ্চিত করারও দাবি জানান রিজভী।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ