ঢাকা,বুধবার 14 November 2018, ৩০ কার্তিক ১৪২৫, ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

ফ্রি অ্যাপের মাধ্যমে যেভাবে চুরি যাচ্ছে আপনার ব্যক্তিগত তথ্য

অনেকেই প্লে-স্টোর থেকে ডাউনলোড করেন ফ্রি অ্যাপস। কিন্তু ফ্রি অ্যাপসের চক্করে চুরি হতে পারে আপনার গুরুত্বপূর্ণ তথ্য। এই ধরণের অ্যাপগুলোর ৯০ শতাংশই গুগলের সঙ্গে শেয়ার করে থাকে ইউজারদের তথ্য। যেটির জন্য অবশ্য নেওয়া হয় না ইউজারদের সম্মতি৷ তথ্য জানাচ্ছে, বেশিরভাগ সময়ই শিশুদের টার্গেট করে অ্যাপটি। যদিও বিষয়টিকে সম্পূর্ণভাবে অস্বীকার করেছে গুগল।
যদি কোনও অ্যাপের মাধ্যমে হিংসাত্মাক ম্যাসেজ ছড়িয়ে পড়ে। তবে তার বিরুদ্ধে যথোপোযুক্ত ব্যবস্থা নেবে গুগল। রির্পোটের তথ্য জানাচ্ছে, তথ্য শেয়ারিং কান্ডের সঙ্গে শুধু গুগলই জড়িত নয়। ৪৩ শতাংশের মত অ্যাপ ফেসবুকের সঙ্গে তথ্য শেয়ার করে থাকে। এছাড়াও বেশ কিছু অ্যাপস রয়েছে যেগুলো টুইটার, আমাজন, মাইক্রোসফটের মত নামিদামি সংস্থাগুলোর সঙ্গে ইউজারদের গোপন তথ্য শেয়ার করে থাকে।
তবে তথ্য চুরি ও শেয়ার করার ঘটনা প্রথম নয়। এর আগেও একইভাবে তথ্য চুরি হয়েছে। শুধু তাই নয়, যেগুলোকে বিজ্ঞাপনের জন্য ব্যবহার করা হয়েছে বলেও দাবি। বেশ কিছু দিন যাবতই চলছে এই তথ্য চুরির পর্বটি৷ ইদানিং সংবাদ মাধ্যমের দৌলতে সামনে আসছে বিষয়টি। আর সেখান থেকেই নিজের তথ্য কতটা সুরক্ষিত সে বিষয়টি নিয়ে সরব হয়েছেন ইউজাররা। এমনকি আরও বেশি গুরুত্ব দেওয়া উচিত গ্রাহকদের তথ্য সুরক্ষার বিষয়টির উপর। এমনই দাবি ইউজারদের একাংশের৷
অনেকেই ফ্রি অ্যাপ ডাউনলোড করে থাকেন। কিন্তু মাঝেমধ্যেই সেটি হতে পারে ক্ষতিকারক। গোপন তথ্য আপনার অজান্তেই পৌঁছে যেতে পারে থার্ড-পার্টি অ্যাপগুলোর হাতে। যেটি মোটেও যুক্তিযুক্ত নয়। পরবর্তীক্ষেত্রে এটি থেকে দেখা দিতে পারে সমস্যাও। তাই প্লে-স্টোর থেকে ফ্রি অ্যাপ ডাউনলোড করার আগে সর্তক থাকুন। কারণ আসল নকলের মধ্যে রয়েছে সুক্ষ ব্যবধান৷ আর অনেক সময়ই সাধারণের চোখকে ফাঁকি দেয় সেই ব্যাবধান। ইন্টারনেট

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ