ঢাকা, শনিবার 15 December 2018, ১ পৌষ ১৪২৫, ৭ রবিউস সানি ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

নরসিংদীতে আওয়ামী লীগের ২ গ্রুপের সংঘর্ষে এসএসসি পরীক্ষার্থী নিহত

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক:

নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলার চরাঞ্চল বাঁশগাড়িতে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় প্রতিপক্ষের গুলিতে তোফায়েল হোসেন (১৮) নামে এক এসএসসি পরীক্ষার্থী নিহত হয়েছেন। এসময় আহত হয়েছেন কমপক্ষে আরও ১০ জন। এরমধ্যে ৩ জনকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

আজ শুক্রবার (১৬ নভেম্বর) সকালে রায়পুরা উপজেলার চরাঞ্চলের বাঁশগাড়ী গ্রামে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।

রায়পুরা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মোজাফফর হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে বাঁশগাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা সিরাজুল হক ও সাবেক চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা শাহেদ সরকারের সমর্থকদের বিরোধ চলে আসছিলো। এ বিরোধে গত ৩ মে দুর্বৃত্তদের গুলিতে নিহত হন ইউপি চেয়ারম্যান সিরাজুল হক। এর কিছুদিন পর হঠাৎ অসুস্থ হয়ে মারা যান শাহেদ সরকার।

ইউপি চেয়ারম্যান সিরাজুল হক হত্যার পর থেকে প্রতিপক্ষের ভয়ে এলাকা ছেড়ে পালিয়ে যায় শাহেদ সমর্থকরা। দীর্ঘদিন পলাতক থাকার পর শুক্রবার সকালে শাহেদ সমর্থকরা এলাকায় ফিরলে প্রতিপক্ষ সিরাজ সমর্থকরা আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে তাদের ওপর হামলা চালায়। এসময় দুইপক্ষের লোকজন সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়লে গুলিবিদ্ধসহ কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়। এরমধ্যে ৪ জনকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় নরসিংদী সদর হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসকরা তোফায়েল হোসেন নামে একজনকে মৃত ঘোষণা করেন। গুরুতর আহতাবস্থায় ৩ জনকে ঢাকা মেডিকেলে পাঠানো হয়।

রায়পুরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মহসিন উল কাদির বলেন, আধিপত্য বিস্তারের জের ধরে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনেছে। এই ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ