ঢাকা, বৃহস্পতিবার 13 December 2018, ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ৫ রবিউস সানি ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

তারেকের বিরুদ্ধে আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ, ইসিতে আ.লীগ

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক:

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসন তারেক জিয়ার বিরুদ্ধে নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের লিখিত অভিযোগ করেছেন আওয়ামী লীগের একটি প্রতিনিধি দল।

আজ রোববার সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ফারুক খানের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধিদল নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দীন আহমদের কাছে এ অভিযোগ জানায়।

নির্বাচন কমিশন সচিবের কাছে অভিযোগ দিয়ে বেরিয়ে যাওয়ার সময় ফারুক খান সাংবাদিকের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন। এক প্রশ্নের জবাবে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ‘গত দুই দিনে দেশের জনগণের মতো আওয়ামী লীগও লক্ষ করছে, নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘিত হচ্ছে। আজকে আমরাও দেখেছি, আপনারাও দেখেছেন, দেশের একজন পলাতক, দণ্ডিত আসামি বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান দলের মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সঙ্গে স্কাইপে বা টেলিকনফারেন্সের মাধ্যমে কথা বলেছে। এটি সুপ্রিম কোর্টের রায়ের সুস্পষ্ট লঙ্ঘন, এটি আদালত অবমাননার শামিল।’ তিনি আরও বলেন, কিছুদিন আগে নির্বাচন কমিশন বলেছে, গঠনতন্ত্র পরিবর্তন করে তারেক রহমান বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করতে পারেন না। এটি নির্বাচনী ব্যবস্থাকে প্রশ্নবিদ্ধ করবে। এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ দেওয়া হয়েছে, নির্বাচন কমিশন ব্যবস্থা নেবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

তিনি জানান, শনিবার যুক্তফ্রন্টের নেতারা আদালত প্রাঙ্গণে নির্বাচন নিয়ে এমন সব কথা বলেছেন যা আইনের সুস্পষ্ট লঙ্ঘন। নির্বাচন প্রশ্নবিদ্ধ করার একটি প্রয়াস। এটি অব্যাহত থাকলে নির্বাচন প্রশ্নবিদ্ধ হবে। ইসি পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে এ বিষয়ে পদক্ষেপ নেবে বলে জানিয়েছে।

তারেক জিয়া নির্বাচনি আচরণবিধির কোন ধারাটি লঙ্ঘন করেছেন এ বিষয়ে জানতে চাইলে আওয়ামী লীগ নেতারা বিষয়টি স্পষ্ট করে জানাতে পারেননি। তবে এ বিষয়ে দলের সাংগঠনিক সম্পাদক মুহিবুল হাসান নওফেল বলেন, ‘তারেক জিয়া পলাতক দণ্ডিত আসামি। তিনি কোনও রাজনৈতিক ও নির্বাচনি প্রক্রিয়ায় অংশগ্রহণ করতে পারেন না। তিনি তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে কোর্টের আদেশ লঙ্ঘন করেছেন। এটি আইনত অবৈধ ও অনৈতিক। গণমাধ্যমের প্রতি আহ্বান জানাবো আদালতের আদেশ মেনে তার খবর যেন প্রকাশ করা না হয়। ’ এজন্য তার দল বিএনপিকে দায়ী করেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে নির্মিত ডকু-ড্রামা ‘হাসিনা: অ্যা ডটারস টেল’ আচরণবিধি লঙ্ঘনের মধ্যে পড়ে কিনা এ প্রশ্নের জবাবে ফারুক খান বলেন, ‘এটি বিনোদন মাধ্যমে দেখানো হচ্ছে। মানুষ টাকা দিয়ে দেখছেন। এর সঙ্গে নির্বাচনের কোনও সম্পর্ক নেই। এছাড়া টেলিভিশনে প্রচারিত ‘থ্যাংক ইউ প্রধানমন্ত্রী’ ভিডিওচিত্রটি আচরণবিধির মধ্যে পড়ে কিনা সে বিষয়েও তিনি কোনও জবাব দেননি।

আওয়ামী লীগের কৃষি ও সমবায়বিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন্নাহার লাইলী, বন ও পরিবেশবিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন প্রমুখ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ