ঢাকা, বুধবার 12 December 2018, ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ৪ রবিউস সানি ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন নিয়ে সংশয় সুজনের

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক:

দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছে সুশাসনের জন্য নাগরিক-সুজন।সংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে সুজন সম্পাদক বলেন, একাদশ সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠান নিয়ে সংশয় রয়েছে। অতীতেও দলীয় সরকারের অধীনে প্রশ্নবিদ্ধ নির্বাচন হয়েছে। তাই এই ৩০শে ডিসেম্বরের নির্বাচন দলীয় সরকারের অধীনে যাতে প্রভাবিত না হয় সেজন্য নির্বাচন কমিশনকে সঠিক ভূমিকা রাখার আহ্বান জানান নাগরিক সংগঠন সুজন সম্পাদক।তিনি বলেন, একাদশ সংসদ নির্বাচন সুষ্ঠু হওয়া অত্যন্ত জরুরি। এ নির্বাচন সুষ্ঠু না হলে তরুণরা বিপদগামী হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে আজ সোমবার রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে সুজন সম্পাদক বদিউল আলম মজুমদার এসব কথা বলেন। 

অনুষ্ঠানে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সুজনের কেন্দ্রীয় সমন্বয়কারী দিলীপ কুমার সরকার। ইসিকে উদ্দেশ্য করে লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, মনোনয়নপত্রের সঙ্গে প্রার্থীর হলফনামা ও আয়কর বিবরণী প্রকাশ এবং তা ওয়েবসাইটে দিতে হবে। নির্বাচনী প্রচারণার ক্ষেত্রে কোনো সাংসদ যাতে বিশেষ কোনো সুবিধা না পায় সে দিকে লক্ষ্য রাখার আহ্বান জানায় সুজন।

বদিউল আলম মজুমদার বলেন, আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনও দলীয় সরকারের অধীনে হচ্ছে। তাই এ নির্বাচনও সংশয়মুক্ত নয়। এখানে ঝুঁকি থেকেই যায়।

সংবাদ সম্মেলনে একাদশ সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে অংশগ্রহণকারী সব রাজনৈতিক দল ও প্রার্থীর লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নিশ্চিত করার আহ্বান জানায় সুজন।

এ লক্ষ্যে তারা নির্বাচন কমিশনের প্রতি ১৬ দফা প্রস্তাব করেছেন।

একইভাবে নির্বাচনে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নিশ্চিত করার জন্য সরকারের প্রতি তিন দফা, রাজনৈতিক দলগুলোর প্রতি তিন দফা, মন্ত্রী ও সাংসদদের প্রতি তিন দফা, নির্বাচনী দায়িত্বে নিয়োজিত সরকারি-বেসরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের প্রতি তিন দফা, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর প্রতি সাত দফা, গণমাধ্যমের প্রতি চার দফা, প্রার্থী ও সমর্থকদের প্রতি চার দফা এবং ভোটারদের প্রতি তিন দফা প্রস্তাব করেছে সুজন।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন-২০১৮ সুষ্ঠু, শান্তিপূর্ণ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন অনুষ্ঠানের আহ্বান জানাতে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে সুজন।

বদিউল আলম মজুমদার বলেন, নির্বাচন কমিশনের হাতে সীমাহীন ক্ষমতা আছে। তারা চাইলেই নির্বাচনকে সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য করতে পারেন। তবে ক্ষমতা থাকলেই হবে না, ক্ষমতা ব্যবহারের সাহস দেখাতে হবে।

প্রার্থী বাছাইয়ে সৎ ও যোগ্য ব্যক্তিকে মনোনয়ন দিতে রাজনৈতিক দলগুলোর প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ