ঢাকা, সোমবার 10 December 2018, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ২ রবিউস সানি ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

মনোনয়নপত্র বিতরণের শেষ দিনেও প্রার্থী পরিবর্তন বিএনপির

স্টাফ রিপোর্টার: ঢাকার আসনগুলোর মনোনীত প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্ধের মধ্য দিয়ে নির্বাচনী প্রক্রিয়া শেষ করেছে বিএনপি। এদিকে প্রতীক বরাদ্দের শেষ দিনেও প্রার্থী পরিবর্তন করেছে বিএনপি। চট্টগ্রাম-৮ আসনে সাবেক পররাষ্ট্র মন্ত্রী এম মোরশেদ খানকে বাদ দিয়ে মহানগর বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আবু সুফিয়ানকে মনোনয়ন দিয়েছে তারা। এ ছাড়া আরো তিনটি আসনে প্রার্থীর মনোনয়নে পরিবর্তন আনা হয়েছে। এগুলো হচ্ছে, মানিকগঞ্জ-১ আসনে এস এ কবির জিন্নার স্থলে বিএনপির সাবেক মহাসচিব খোন্দকার দেলোয়ার হোসেনের ছেলে এডভোকেট খোন্দকার আবদুল হামিদ ডাবলু, শেরপুর-২ একেএস মোখলেছুর রহমান রিপনের স্থলে সাবেক হুইপ মরহুম জাহিদ আলীর ছেলে ফাহিম চৌধুরীকে প্রতীক দেয়া হয়েছে।
এদিকে গুলশান কার্যালয়ে ঢাকা-১ আসনে আবু আশফাক খন্দকার, ঢাকা- ৫ আসনে নবী উল্লাহ নবী, রাজশাহী-৫ আসনে নাদিম মোস্তফা প্রতীকের চিঠি শেষ মুহূর্তে পেয়ে প্রার্থীরা দ্রুত রিটার্নিং অফিসের উদ্দেশ্যে রওনা হয়। গতকালও মনোনয়ন বিতরণকালে সকাল থেকে গুলশানের কার্যালয়ে মুন্সিগঞ্জ-১ আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশী মো. আবদুল্লাহ ও কুমিল্লা-৪ আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশী মুনজুরুল আহসান মুন্সির কর্মী-সমর্থকরা তাদের নেতাদের মনোনয়নের দাবিতে বিক্ষোভ শুরু করে। দুপুর পর্যন্ত তারা অফিসের সামনে অবস্থান নিয়ে প্রতিবাদ জানান। এই দুই আসনে কুমিল্লা-৪ এ জেএসডির সাধারণ সম্পাদক আবদুল মালেক রতন ও মুন্সিগঞ্জ-১ আসনে দলের ভাইস চেয়ারম্যান শাহ মোয়াজ্জেম হোসেন চূড়ান্ত মনোনয়ন পান ধানের শীষে।
গতকাল দুপুরে ঢাকা-৬ আসনে আমি বৃহত্তর ঐক্যের স্বার্থে প্রার্থিতা থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিলেন ঢাকার সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকার ছেলে ইশরাক হোসেন। তিনি বলেন, আমি দলের সিদ্ধান্ত আজকে মেনে নিচ্ছি। আমি বিএনপির ঢাকা-৬ এর প্রার্থী ছিলাম, এখনো আছি। আমার বাবা সাদেক হোসেন খোকা ১৯৯১ সাল থেকে ২৭/২৮ বছর এই আসনটি ধরে রেখেছেন। এখন বৃহত্তর স্বার্থে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্য, আমাদের কারাবন্দী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করার জন্য, আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আগামী দিনের প্রধানমন্ত্রী তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনার জন্য আমাদেরকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। আমি এলাকাবাসীকে বলব- সবাই শান্ত থাকুন। এটাই শেষ নয়। দলের জন্য এক হয়ে কাজ করতে হবে, ঐক্যের স্বার্থে এক সঙ্গে কাজ করতে হবে, ধানের শীষের প্রতীকের জন্য এক সঙ্গে কাজ করতে হবে । তিনি বলেন, বৃহত্তর স্বার্থের জন্য অনেক সময় ব্যক্তি স্বার্থ বলি দিতে হয়। আমি আমার ব্যক্তিস্বার্থকে বলি দিলাম। প্রার্থী কে এটা মূখ্য বিষয় নয়। তিন আসনে এখন প্রার্থী ম্যাডাম বেগম খালেদা জিয়া। তার প্রতীক ধানের শীষ। একে জিতাতে হবে। এই ধানের শীষের প্রতীককে জিতানোর জন্য আমি যা করা দরকার তাই করতে হবে। কারণ বিএনপি আমার, ধানের শীষের জন্য আমি। একে অবশ্যই আমাদের বিজয়ী করতে হবে। ঢাকা-৬ আসনে গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতা অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী ধানের শীষে প্রতীক বরাদ্ধ পেয়েছেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ