ঢাকা, মঙ্গলবার 11 December 2018, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ৩ রবিউস সানি ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

তুরস্কের অনুরোধে সৌদি আরবের ‘না’

১০ ডিসেম্বর, রয়টার্স : সাংবাদিক জামাল খাসোগির খুনের ঘটনায় সাবেক দুজন ঊর্ধ্বতন সৌদি কর্মকর্তার বিরুদ্ধে তুরস্ক গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করলেও তাদের হস্তান্তর করা হবে না বলে জানিয়েছে সৌদি আরব।

রোববার রিয়াদে এক সংবাদ সম্মেলনে সৌদি আরবের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আদেল আল জুবেইর একথা জানিয়েছেন ।

 “আমরা আমাদের নাগরিকদের হস্তান্তর করবো না,” ওই গ্রেপ্তারি পরোয়ানার বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে বলেছেন জুবেইর।

প্রায় এক সপ্তাহ আগে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিজেপ তায়িপ এরদোয়ান সন্দেহভাজনদের হস্তান্তরের দাবি জানিয়েছিলেন বলে খবর বিবিসির।

বুধবার ইস্তাম্বুলের প্রধান কৌঁসুলি ওই দুই সাবেক ঊর্ধ্বতন সৌদি কর্মকর্তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন।

তুরস্কের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, গত সপ্তাহে প্রধান কৌঁসুলির দপ্তর এই সিদ্ধান্তে আসে যে সৌদি ক্রাউন প্রিন্সের শীর্ষ সহযোগী সৌদ আল কাহতানি ও বৈদেশিক গোয়েন্দা বিষয়ক উপপ্রধান জেনারেল আহমেদ আল আসিরি খাশুগজি খুনের পরিকল্পনাকারীদের মধ্যে ছিলেন তা সন্দেহ করার মতো যথেষ্ট তথ্য আছে।

২ অক্টোবর ইস্তাম্বুলের সৌদি কনসুলেটে প্রবেশ করার পর খাশুগজিকে হত্যা করা হয়।

এই হত্যাকাণ্ডের জেরে গত মাসে ১৭ সৌদির ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে যুক্তরাষ্ট্রের অর্থ মন্ত্রণালয়। তাদের ওই নিষেধাজ্ঞা তালিকায় কাহতানির নাম থাকলেও আসিরির নাম নেই।

সৌদি আরবের পাবলিক প্রসিকিউটর জানিয়েছেন, খাসোগিকে দেশে ফিরিয়ে নেয়ার আদেশটি আসিরির কাছ থেকে এসেছিল এবং কাহাতানির ওপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

বর্তমানে এ দুজন আটকাবস্থায় আছেন কি না, সংবাদ সম্মেলনে এমন প্রশ্নের জবাব দিতে রাজি হননি সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ