ঢাকা, বুধবার 23 January 2019, ১০ মাঘ ১৪২৫, ১৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

বাংলাদেশে এবছরেই 'ক্রসফায়ারে' হত্যার নতুন রেকর্ড

একরামুল হক

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক:

"কেন আমার স্বামীর মতো একজন নির্দোষ মানুষকে এভাবে হত্যা করা হলো? এখনো বিচার পাইনি, মামলাও করতে পারিনি। সব সময়ই হুমকির মুখে আছি আমরা।"

বলছিলেন আয়েশা বেগম - এ বছরই কথিত 'বন্দুকযুদ্ধে' নিহত টেকনাফের পৌর কাউন্সিলর ও স্থানীয় যুবলীগ নেতা মো. একরামুল হকের স্ত্রী ।

এ বছর অক্টোবর পর্যন্ত মাদক-বিরোধী অভিযানে নিহত চার শতাধিক লোকের একজন এই একরামুল হক।

শত শত মৃত্যুর মধ্যেও ওই ঘটনাটি বিশেষ চাঞ্চল্য সৃষ্টি করে - কারণ সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া একটি অডিও টেপ, যাতে একরামুল হককে তার মেয়ের সাথে কথা বলতে শোনা যায়, এর পর শোনা যায় গুলির শব্দ, আর্তচিৎকার এবং ফোনের একপাশ থেকে মি. হকের স্ত্রীর কান্না, সব মিলিয়ে এক ভয়াবহ পরিবেশের চিত্র ফুটে ওঠে ওই অডিওতে।

এটি প্রকাশ পাওয়ার পর সামাজিক নেটওয়ার্কে ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। আয়েশা বেগম সোমবার বিবিসি বাংলাকে জানান, তিনি এখনো বিচার চেয়ে একটি মামলাও করতে পারেন নি।

তিনি জানান, কক্সবাজার থানায় মামলা করার চেষ্টা করেছেন তার পরিবারের অন্যেরা, কিন্তু মামলা করতে দেয়া হয়নি বরং তাদের নানা হুমকির শিকার হতে হয়েছে।

মানবাধিকার সংগঠন আইন ও সালিশ কেন্দ্র (আসক) বলছে, চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে অক্টোবর পর্যন্ত অর্থাৎ প্রথম ১০ মাসে ৪৩৭ জন বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছেন।-বিবিসি বাংলা

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ