ঢাকা, শুক্রবার 14 December 2018, ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ৬ রবিউস সানি ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

নেত্রকোনায় বিএনপি প্রার্থীর বাড়িতে হামলা ॥ ভাংচুর গুলী বর্ষণ ॥ গ্রেফতার ২৩

নেত্রকোণা সংবাদদাতা : নেত্রকোনা-৩ (কেন্দুয়া-আটপাড়া) আসনের নির্বাচনী প্রচার প্রচারণাকে কেন্দ্র করে বিএনপির প্রার্থীর বাড়িতে হামলা, ইট-পাটকেল নিক্ষেপ ও গাড়ী ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে বলে বিএনপির পক্ষ থেকে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ সময় আত্মরক্ষার্থে ২৫ রাউন্ড ফাঁকা গুলী বর্ষণের ঘটনা ঘটে।

 বিএনপির প্রার্থী ড. মোঃ রফিকুল ইসলাম হিলারী’র অভিযোগ এতে আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা জয় বাংলা স্লোগান দিতে দিতে তার বাড়ীতে হামলা চালায়। তারা এ সময় বৃষ্টির মতো ইট-পাটকেল নিক্ষেপ এবং নির্বাচনী প্রচার প্রচারণা কাজে ব্যবহৃত দুইটি প্রাইভেট কার, বেশ কয়েকটি মোটর সাইকেল ও একটি অটোরিকশা ভাংচুর করে। এ সময় আত্মরক্ষার্থে আমি আমার লাইসেন্সকৃত শর্ট গান দিয়ে ১৩ রাউন্ড এবং রিভলবার থেকে ১২ রাউন্ড ফাঁকা গুলী বর্ষণ করতে বাধ্য হই। হামলায় তিন নেতাকর্মী আহত হয়। 

 এ আসনে আওয়ামীলীগের প্রার্থী কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল বলেন, আটপাড়ায় ছাত্রলীগ, যুবলীগ নেতাকর্মীদের উপর বোমা হামলার প্রতিবাদে কেন্দুয়া উপজেলা আওয়ামীলীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা রাত সাড়ে ৮টার দিকে একটি প্রতিবাদ মিছিল বের করে। মিছিলটি হিলালীর বাড়ীর পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় বিএনপির নেতাকর্মীরা তাদেরকে লক্ষ্য করে উসকানিমূলক আচরণ করায় নেতাকর্মীরা ক্ষিপ্ত হয়ে উঠলে এ ঘটনা ঘটে। 

 আটপাড়ায় ছাত্রলীগ যুবলীগ নেতাকর্মীদের উপর বোমা হামলার ব্যাপারে হিলালীকে জিজ্ঞাসা করলে তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, আমার নেতাকর্মীরা একদিকে ক্ষমতাসীন দলের নেতাকর্মীদের অব্যাহত হুমকি ধামকি অপরদিকে পুলিশী হয়রানি ও গ্রেফতার আতংকে যেখানে নির্বাচনী মাঠেই নামতে পারছে না। সেখানে তাদের উপর বোমা হামলা চালানোর বিষয়টি হাস্যকর।

 নেত্রকোনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মোঃ শাহজাহান মিয়া’র সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, খবর পাওয়ার পরপরই আমি ঘটনাস্থলে ছুটে যাই। যে কোনো অনাকাক্সিক্ষত ও বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি এড়াতে পুলিশ সর্বদা সতর্ক অবস্থানে রয়েছে। এ ঘটনায় ৯ জন বিএনপির নেতাকর্মীকে আটক করা হয়েছে। অপর দিকে মামলা ও অভিযোগের প্রেক্ষিতে পূর্বধলা উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক গোহালাকান্দা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ফকির সায়েদ আল মামুন শহীদ, মদন পৌর কাউন্সিলর মোঃ মাসুদ, কলমাকান্দা উপজেলার কৈলাটী ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি কামাল হোসেনসহ ৩ জন, নেত্রকোনা সদরে ১০ জন সহ মোট ২৩ জন বিএনপির নেতাকর্মী গ্রেফতার করা হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ