ঢাকা, বুধবার 19 December 2018, ৫ পৌষ ১৪২৫, ১১ রবিউস সানি ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

হামলার প্রতিবাদে সুপ্রিম কোর্টে আইনজীবীদের বিক্ষোভ

স্টাফ রিপোর্টার : জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রধান সমন্বয়ক ও সংবিধান প্রণেতা ড. কামাল হোসেন, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও সিনিয়র আইনজীবী মওদুদ আহমদ, জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতা আইনজীবী সুব্রত চৌধুরী, বিএনপির আইন সম্পাদক ব্যারিস্টার কায়সার কামাল ও বিএনপি নেতা আইনজীবী মো: আসাদুজ্জামানের ওপর হামলার প্রতিবাদ এবং সুপ্রিম কোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশনের সম্পাদক ব্যারিস্টার এএম মাহবুবউদ্দিন খোকনের ওপর গুলি বর্ষণের প্রতিবাদে সুপ্রিম কোর্টে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছেন আইনজীবীরা। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে সুপ্রিম কোর্ট বার ভবনে গণতন্ত্র ও খালেদা জিয়া মুক্তি আইনজীবী আন্দোলনের ব্যানারে শতাধিক আইনজীবী নির্বাচনী প্রচারণা কালে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ও বিএনপির প্রার্থীদের ওপর হামালার প্রতিবাদ জানান। সংগঠনের চেয়ারম্যান আইনজীবী তৈমূর আলম খন্দকারের সভাপতিত্বে এতে বক্তব্য রাখেন ঢাকা বারের সাবেক সভাপতি ও বিএনপির আইন সম্পাদক সানা উল্লাহ মিয়া, সংগঠনের কো-চেয়ারম্যান আবেদ রাজা, মহাসচিব এবিএম রফিকুল হক তালুকদার রাজা, সুপ্রিম কোর্ট বারের সিনিয়র সহ- সম্পাদক কাজী মুহাম্মদ জয়নাল আবেদীন, আনিছুর রহমান খান, আইয়ুব আলী আশ্রাফী, মির্জা আল মাহমুদ, মো: হানিফ, নাসির উদ্দিন খান স¤্রাট, মো: মনির হোসেন, শাফিউর রহমান শফি, নাজমুল হাসান, কামাল হোসেন প্রমুখ।
প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তারা নির্বাচনী প্রচারনণার সময় আইনজীবী নেতৃবৃন্দের ওপর হামার ঘটনায় তীব্র প্রবিদান, নিন্দা এবং ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেফতার করে শাস্তি দেয়ার দাবি জানিনে। এছাড়া ব্যারিস্টার এএম মাহবুবউদ্দিন খোকনের ওপর গুলি চালানোর ঘটনার সাথে জড়িত ওসিকে অবিলম্বে প্রত্যাহার ও গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছেন।
তারা নির্বাচন কমিশনকে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরির লক্ষ্যে অবিলম্বে সকল নির্বাচনী এলাকায় সেনাবাহিনী মোতায়েন করে নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশ সৃষ্টি করতে নির্বাচন কমিশনের প্রতি আহ্বান জানান। তারা বলেন, জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রাককালে এই ধরণের হামলা গণতন্ত্রের ওপর আঘাত। এ ধরণের ঘটনা ঘটতে থাকলে দেশ অস্থিতিশীল পরিবেশের দিকে যোবে এবং গণতন্ত্র বিপন্ন হতে পারে।
খোকনের ওপর গুলি বর্ষণের ঘটনা ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে তদন্তের নির্দেশ: সুপ্রিম কোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশনের সম্পাদক ব্যারিস্টার এএম মাহবুবউদ্দিন খোকনের ওপর গুলি বর্ষণের সাথে জড়িত নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী থানার ওসিকে প্রত্যার এবং ঘনটার তদন্ত চেয়ে চেয়ে নির্বাচন কমিশনে করা আবেদন আগামী ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে নিষ্পত্তির নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। এ বিষয়ে করা এক রিট আবেদনের শুনানি গ্রহণ করে গতকাল বিচারপতি মইনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি মো: আশরাফুল কামালের হাইকোর্ট বেঞ্চ এক রিট আবেদনের শুনানি গ্রহণ করে এ আদেশ দেন। এরআগে গত ১৬ ডিসেম্বর ব্যারিস্টার এএম মাহবুবউদ্দিন খোকনের ছেলে ব্যারিস্টার সাকিব মাহবুব নির্বাচন কমিশনে সোনাইমুড়ী থানার ওসিকে প্রত্যাহার ও ব্যারিস্টার খোকনের ওপর গুলি বর্ষণের ঘটনা তদন্ত চেয়ে আবেদন করেন। আবেদনে তিনি ১২ ঘণ্টার মধ্যে ওসিকে প্রত্যাহার ও ঘটনার তদন্ত চেয়েছিলেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ