ঢাকা, বুধবার 19 December 2018, ৫ পৌষ ১৪২৫, ১১ রবিউস সানি ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

স্বামীর বাড়িতে উঠতে পারছেনা কমলা রানী

তোফাজ্জল হোসেন, বোদা (পঞ্চগড়): পঞ্চগড়ে আদালতের নির্দেশে বিয়ে হলেও স্বামীর বাড়িতে উঠতে পারছেনা কমলা রানী বলে অভিযোগ উঠেছে। ঘটনাটি ঘটেছে আটোয়ারী উপজেলার রাধানগর ইউনিয়নের রসেয়া বানিয়া পাড়া গ্রামে। খোকনের পিতার নাম বিরেন চন্দ্র বর্মন, মাতার নাম অনিতা রানী। জানা গেছে, দীর্ঘদিন খোকনের সাথে প্রেম করার পরে পেটে বাচ্চা আসার পরেও বিয়ে না করায় অবশেষে কমলা রানী বাদী হয়ে পঞ্চগড় আদালতে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল(১৫৯/২০১১) মামলা করেন। মামলা দীর্ঘদিন চলার পরে বিজ্ঞ সিনিয়র সহকারী জজ প্রেমিক খোকন চন্দ্র বর্মনকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ড এবং ১ লক্ষ টাকা অর্থদন্ডের আদেশ প্রদান করেন। বিজ্ঞ আদালত ২০০০(সংশোধনী/০৩) এর ৯(১)/১৩ শাস্তিযোগ্য অপরাধ সন্দেহাতীত ভাবে প্রমাণিত হয়েছে বলে আদালত গত ২৩/০২/১৫ইং তারিখে এই আদেশ দেন। এরপর খোকন পঞ্চগড় জেলখানায় বন্দী জীবন শুরু করেন। মামলা চলাকালীন সময়ে বোদা মডার্ণ ক্লিনিকে কমলা রানী একটি কন্যা সন্তান প্রসব করে। বর্তমানে কমলা রানীর কন্যা সন্তানটি খুকুমনির বয়স প্রায় ৮ বৎসর চলছে বলে কমলা জানায়। খুকুমনি(৮) বলে, আমি বাবার কাছে ফিরে যেতে চাই। বিয়ের দাবীতে বাদিনী কমলা রানী পঞ্চগড় বিজ্ঞ চীফ জুডিশিয়াল আদালতে ৪৯৩ ধারায় আরো একটি মামলা করে। অবশেষে বিজ্ঞ আদালতে নেতৃত্বে পঞ্চগড় কালি মন্দিরে কমলা ও খোকনের আনুষ্ঠানিক বিয়ে সম্পন্ন হয়। শুরু হলো ঘরসংসার। মাত্র ৯দিন স্বামীর বাড়িতে অবস্থান করার পরে শুরু হলো কমলার প্রতি শারীরিক মানসিক সহ নানামুখী নির্যাতন। পরে জীবন বাঁচানোর তাগিদে কমলা রানী শিশু সন্তান সহ অসহায় দিনমুজুর পিতার বাড়িতে অবস্থান নেয়। কমলা রানী বলেন, স্বামী খোকন আমাকে হত্যার হুমকি দিচ্ছে। আমাকে ছেড়ে আবার নুতন করে বিয়ে করার চেষ্টা করছে। দিনমুজুর পিতার বাড়িতে আমি আর কতদিন থাকব? আত্মহত্যা মহাপাপ জেনে ঐ পথে পা দিচ্ছি না। শিশু সন্তান নিয়ে এখন আমার কি হবে? বিজ্ঞ আদালতের আদেশে ভিকটিমের শিশু সন্তান খুকুমনি বিবাহ না হওয়া পর্যন্ত তার ভরন পোষন বাবদ প্রতি মাসে ১ হাজার টাকা দেয়ার নির্দেশনা থাকলেও সেই খরচও আজ পর্যন্ত ১টি টাকাও পায়নি। খোকনের পিতা প্রভাবশালী অপরদিকে কমলা রানীর পিতা অসহায় দিনমুজুর। তাই আদালতের নির্দেশেও তারা এই বিয়ে মেনে নিতে চায় না। আর এ জন্যই কমলা রানীকে পিতার বাড়িতেই অবস্থান করতে হচ্ছে। নারীবাদী সংগঠন গুলোর সহযোগীতা কামনা করেছেন কমলা রানী।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ