ঢাকা, সোমবার 31 December 2018, ১৭ পৌষ ১৪২৫, ২৩ রবিউস সানি ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

সিরিয়ায় সমন্বয় করবে তুরস্ক ও রাশিয়া 

৩০ ডিসেম্বর, সানা : সিরিয়ায় স্থল অভিযান চালানোর ব্যাপারে সমন্বয় করতে একমত হয়েছে তুরস্ক ও রাশিয়া। গত সপ্তাহে দেশটি থেকে মার্কিন বাহিনীকে প্রত্যাহারের ট্রাম্পের ঘোষণার এ সিদ্ধান্তে উপনীত হন তুরস্ক ও রাশিয়া।

তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত কাভুসোগলু’র সঙ্গে সাক্ষাতের পর শনিবার রাশিয়ার রাজধানী মস্কোয় এ বিষয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ।

তিনি বলেন, আমরা মার্কিন সামরিক উপস্থিতি প্রত্যাহারের বাস্তবতায় নতুন পরিস্থিতিতে বিশেষ মনোযোগ দিয়েছি। সিরিয়ায় সন্ত্রাসী হুমকির অবসান ঘটানোর লক্ষ্যে রাশিয়া ও তুরস্কের সামরিক প্রতিনিধিরা কীভাবে নতুন পরিস্থিতিতে নিজেদের মধ্যে সমন্বয় করবেন তা নিয়ে আমাদের পারস্পরিক বোঝাপড়া হয়েছে।

তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত কাভুসোগলু বলেন, সিরিয়ায় অভিযান পরিচালনার ক্ষেত্রে দুই দেশই পারস্পরিক সমন্বয় সাধন করবে।

তিনি বলেন, আট বছরের গৃহযুদ্ধের ভয়াবহতায় শরণার্থীতে পরিণত হওয়া মানুষদের তাদের নিজ বাড়িঘরে পৌঁছাতে কিভাবে সাহায্য করা যায় তা নিয়েও রাশিয়ার সঙ্গে কথা হয়েছে।

সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদের অনুগত বাহিনীর দাবি, শুক্রবার কুর্দি বিদ্রোহীদের আহ্বানে সাড়া দিয়ে কুর্দিদের শক্ত ঘাঁটি মানবিজ শহরে প্রবেশ করেছে তারা। তবে মানবিজ শহরে বাশার বাহিনীর প্রবেশের দাবি নাকচ করে দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। ইউএস সেন্ট্রাল কমান্ডের মুখপাত্র লেফটেন্যান্ট কর্নেল আল ব্রাউন বলেছেন, মানিবিজ শহরে সামরিক বাহিনীর পরিবর্তনের ভুল তথ্য সত্ত্বেও যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বাধীন সামরিক জোট এমন দাবির কোনও সত্যতা পায়নি।

তিনি বলেন, সব পক্ষকেই মানবিজের অখণ্ডতা এবং সেখানকার বাসিন্দাদের সুরক্ষার প্রতি সম্মান দেখাতে হবে।

কুর্দি বিদ্রোহীদের প্রধান পৃষ্ঠপোষক ও অস্ত্র সরবরাহকারী যুক্তরাষ্ট্র। সিরিয়ার তুরস্ক সীমান্তবর্তী মানবিজ শহরে ২০১৬ সাল থেকে কুর্দি বাহিনী মোতায়েন রয়েছে। সেখানে তাদের সহায়তা করছে মার্কিন ও ফরাসি সেনারা।

ইউএস সেন্ট্রাল কমান্ডের মুখপাত্র লেফটেন্যান্ট কর্নেল আল ব্রাউন বলেন, আমাদের লক্ষ্য পরিবর্তন হয়নি। সিরিয়া থেকে মার্কিন বাহিনীর প্রত্যাহার সত্ত্বেও আমরা মিত্রদের সহায়তা দেওয়া অব্যাহত রাখবো। তাদের সুরক্ষায় সম্ভাব্য সব পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

এর আগে আসাদ বাহিনীর পক্ষ থেকে দাবি করা হয় যে, শুক্রবার তারা মানবিজে প্রবেশ করে সিরিয়ার পতাকা উড্ডয়ন করেছে। সিরিয়ার রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থার দাবি, তুরস্কের সামরিক অভিযান মোকাবিলায় সহায়তা করতে সশস্ত্র কুর্দি সংগঠনগুলোর আমন্ত্রণে সাড়া দিয়ে মানবিজে প্রবেশ করেছে আসাদ বাহিনী।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ