ঢাকা, শনিবার 5 January 2019, ২২ পৌষ ১৪২৫, ২৮ রবিউস সানি ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

খুলনাঞ্চলে চালের দাম কেজি প্রতি গড়ে ৪ টাকা বেড়েছে

খুলনা অফিস : বিদায়ী বছরের শেষ সপ্তাহের তুলনায় এ মাসের প্রথম সপ্তাহে খুলনাঞ্চলে চালের দাম বেড়েছে কেজি প্রতি গড়ে ৪ টাকা। আতপ চালের দাম অপরিবর্তিত রয়েছে। গত দুই দিনে বিকিকিনির পরিমাণ কম। পাইকারী ও খুচরা বাজারে মন্দাভাব বিরাজ করছে। বাজারে ভারতীয় চালের আমদানি নেই। দাম বাড়ার পেছনে তিন কারণের কথা উল্লেখ করেছে মিল মালিক ও খুচরা ব্যবসায়ীরা। সরকারি হিসেবে চালের মূল্য বেড়েছে গড়ে ২ টাকা।

আমনের ভরা মওসুম। গোপালগঞ্জ, নড়াইল, বাগেরহাট, সাতক্ষীরা ও যশোরে মহাজন ও প্রান্তিক চাষিদের ঘরে ঘরে আমন উঠেছে। গত ১৫ দিন ধরে আমনের নতুন চাল আমদানি হয়েছে বাজারে। তারপরেও বাজারে উচ্চ মূল্য।

রাইস মিল মালিক সমিতির সভাপতি মুহা. মোস্তফা কামাল বলেন, আমন সংগ্রহ অভিযান শুরু হওয়ার পর ধানের দাম বেড়েছে। নড়াইল ও গোপালগঞ্জ থেকে আসা ধান থেকে উন্নতমানের চাল পাওয়া যাচ্ছে। ধানের দাম বাড়ায় কৃষক আমনের ন্যায্য মূল্য পাচ্ছে। জেলার ১২৩টি রাইস মিলের কোনোটাই এবার লোকসানে নেই।

নিউমার্কেট কাঁচা বাজারের চাল ব্যবসায়ী লাল মিয়া জানান, সরকারের আমন সংগ্রহের সিদ্ধ চালের ক্রয় মূল্য বেশি এবং শুক্রবার থেকে বুধবার পর্যন্ত পরিবহণ বন্ধ থাকায় উত্তর অঞ্চল থেকে চাল না আসায় মূল্য বেড়েছে। তিনি বলেন, গত বুধবার তার দোকানে আড়াই হাজার টাকা ও বৃহস্পতিবার দুপুর পর্যন্ত ৩শ’ টাকা চাল বিকিকিনি হয়েছে। 

একই বাজারের খুচরা ব্যবসায়ী করিম স্টোরের মালিক আব্দুল করিম জানান, ডিসেম্বরের তৃতীয় সপ্তাহের তুলনায় এ মাসের প্রথম সপ্তাহে চালের মূল্য গড়ে ৪ টাকা বৃদ্ধি পেয়েছে। মোটা চাল ৩২ টাকার পরিবর্তে ৩৬ টাকা, মাঝারি চাল ৪২ টাকার পরিবর্তে ৪৮ টাকা, চিকন চাল ৫২ টাকার পরিবর্তে ৫৫ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। খুলনা জেলা খাদ্য দপ্তরের রেকর্ড অনুযায়ী খোলাবাজারে ডিসেম্বরের তুলনায় এ মাসে সিদ্ধ চালের ক্রয় মূল্য গড়ে ২ টাকা এবং আতপের ক্রয় মূল্য গড়ে বৃদ্ধি পেয়েছে। আতপ চাল ৩০ টাকার পরিবর্তে ৩১ টাকা, মোটা চাল ৩৩-৩৪ টাকার পরিবর্তে ৩৫ টাকা, মাঝারি চাল ৩৯ টাকার পরিবর্তে ৪১ টাকা এবং চিকন চাল ৫০ টাকার পরিবর্তে ৫২ টাকা বিক্রি হচ্ছে।

খুলনা জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক মুহাম্মাদ তানভীর রহমান জানান, আমন সংগ্রহের মওসুমে সরকারি ক্রয় মূল্য বেশি হওয়ায় বাজারে চালের দাম বেড়েছে। এবার কৃষকের লোকসানের সম্ভাবনা নেই। সিদ্ধ চালের সরকারি ক্রয় মূল্য কেজি প্রতি ৩৬ টাকা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ