ঢাকা,মঙ্গলবার 8 January 2019, ২৫ পৌষ ১৪২৫, ১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

সরকারের ১ম দিনেই মনোহরদীর দু’টি পরিবহনের ভাড়া বৃদ্ধি যাত্রীদের ক্ষোভ

স্টাফ রিপোর্টার: নতুন সরকারের ১ম দিনেই নরসিংদী জেলার মনোহরদীর দু’টি পরিবহনের ভাড়া বাড়িয়েছে মালিকরা। সরকার পরিবহনের ভাড়া বৃদ্ধি না করলেও তাদের এ ভাড়া বাড়ানোর প্রতিবাদ জানিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে যাত্রীরা। ঢাকা থেকে মঠখোলা রুটের দু’টি পরিবহন ‘মনোহরদী পরিবহন লিমিটেড’ ও ‘রয়েল মনোহরদী পরিবহন লিমিটেড’ বিদ্যমান ভাড়া থেকে বিশ শতাংশের বেশি ভাড়া বাড়িয়েছে বলে যাত্রীরা অভিযোগ করেছে।  যেখানে আগে একশ দশ টাকার ভাড়া নেয়া হতো সেখানে একশ ত্রিশ থেকে চল্লিশ টাকা ভাড়া নেয়া হচ্ছে। মালিক পক্ষ দাবি করছে, তারা সরকার নির্ধারিত ভাড়ার চেয়ে বেশি নিচ্ছে না। এতদিন তারা ভাড়া কম নিয়েছিল, এখন থেকে সরকার নির্ধারিত ভাড়াই নেয়া হচ্ছে।
যাত্রীরা অভিযোগ করেছে, এতদিন মনোহরদী থেকে ঢাকা পর্যন্ত ভাড়া নেয়া হতো একশ থেকে একশ বিশ টাকা। কিন্তু গতকাল সোমবার থেকে নেয়া হচ্ছে একশ চল্লিশ টাকা। কাউন্টারে ভাড়া বাড়ানোর কৈফিয়ত হিসেবে সরকারি এক প্রজ্ঞাপনের সূত্র নাম্বার ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে। তাতে কিলোমিটার হিসেবে ভাড়া নির্ধারণ করা আছে। কিন্তু যাত্রীদের অভিযোগ, যখন জ্বালানি মূল্য বাড়ানো হয়েছিল, তখন তারা বেশি ভাড়া আদায় করতে পারেনি। প্রতিযোগিতার কারণে ভাড়া বেশি নিতে পারেনি। কিন্তুু এখন সরকার কোন ধরনের ভাড়া না বাড়ানো সত্ত্বেও কেন ভাড়া বাড়নো হলো? এ নিয়ে যাত্রীদের মধ্যে ক্ষোভ বিরাজ করছে।
মনোহরদী থেকে ঢাকায় আসা হারুন নামে এক যাত্রী জানান, আমি নিয়মিত এ রুটের যাত্রী। কোন কারণ ছাড়াই হঠাৎ করে এভাবে বাস বাড়া বাড়ানো ঠিক হয়নি। এতে করে সকল যাত্রীই ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। আর তাদের সেবার মানও ভালো নয়। সেবার মান না বাড়িয়েই ভাড়া বৃদ্ধি করায় যাত্রীদের মধ্যে ক্ষোভ রয়েছে বলে তিনি জানান।
মালিকপক্ষ বলছে, রোববার থেকে সরকার নির্ধারিত ভাড়া আদায় করার ঘোষনা দেয়া হয়েছে। এতদিন নির্ধারিত ভাড়ার কম নেয়া হতো। নতুন করে ভাড়া বাড়ানো হয়নি বলে তারা জানান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ