ঢাকা,মঙ্গলবার 8 January 2019, ২৫ পৌষ ১৪২৫, ১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

কুমিল্লার মামলায় খালেদা জিয়ার জামিন শুনানী ১৬ জানুয়ারি

কুমিল্লা অফিস : কুমিল্লায় খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে বাসে  পেট্রোল বোমায় ৮ যাত্রী হত্যা মামলার চার্জগঠন ও জামিন আবেদনের পরবর্তী শুনানী আগামী ১৬ জানুয়ারি ধার্য্য করেছে কুমিল্লা জেলা ও দায়রা জজ আদালত। গতকাল সোমবার দুপুরে কুমিল্লা অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ প্রথম আদালতের বিচারক হাবিবুর রহমান এ আদেশ দেন। কুমিল্লার আদালতের রাস্ট্রপক্ষের কৌশুলী মো. মোস্তাফিজুর রহমান লিটন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, কুমিল্লা জেলা ও দায়রা জজের পদ অবসরজনিত কারণে শূণ্য থাকায় আগামী ১৬ জানুয়ারি মামলার চার্জগঠন ও জামিন আবেদনের পরবর্তী শুনানীর দিন ধার্য্য করা হয়েছে।
আদালত সূত্রে জানা যায়, বিএনপি-জামায়াতসহ ২০ দলীয়  জোটের ডাকা হরতাল-অবরোধ চলাকালে ২০১৫ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি ভোর রাতে কক্সবাজার থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী আইকন পরিবহনের একটি নৈশ কোচ জেলার চৌদ্দগ্রামের জগমোহনপুর নামক স্থানে পৌঁছলে দুর্বৃত্তরা বাসটি লক্ষ্য করে পেট্রোল বোমা নিক্ষেপ করে। এতে আগুনে পুড়ে ঘটনাস্থলে ৭জন ও হাসপাতালে নেয়ার পর ১জনসহ মোট ৮ ঘুমন্ত যাত্রী মারা যায়। ওই ঘটনায় চৌদ্দগ্রাম থানার এসআই নুরুজ্জামান হাওলাদার বাদী হয়ে পরদিন বিশেষ ক্ষমতা আইনে একটি ও বিস্ফোরক আইনে একটিসহ থানায় পৃথক ২টি মামলা দায়ের করেন। এ দুটি মামলায় পুলিশসহ ৬২ জন স্বাক্ষীর স্বাক্ষ্য গ্রহণ শেষে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা চৌদ্দগ্রাম থানার এসআই ইব্রাহিম ২০১৭ সালের ৬ মার্চ আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। মামলার প্রতিটিতে ৭৮ জনকে চার্জশিটভুক্ত করা হয়। এদের মধ্যে উভয় মামলায় জামায়াতের কেন্দ্রীয় নেতা চৌদ্দগ্রামের সাবেক এমপি ডা. সৈয়দ আবদুল্লাহ মোহাম্মদ তাহেরকে প্রধান আসামী করা হয়। এছাড়া চার্জশিটে বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া, চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা মনিরুল হক চৌধুরী ও দলের ভাইস চেয়ারম্যান সাংবাদিক শওকত মাহমুদ, দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য এম.কে আনোয়ার, ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিঞা, যুগ্ম মহাসচিব সালাহউদ্দিন আহমেদ, দপ্তর সম্পাদক অ্যাড. রুহুল কবির রিজভীকে হুকুমের আসামী করা হয়। তদন্ত শেষে ওই ২টি চার্জশিটে মামলার এজাহারভুক্ত ৮ জনকে অব্যাহতি দেয়া হয়। এদের মধ্যে চৌদ্দগ্রামের চান্দিশকরা গ্রামের সাহাব উদ্দিন পাটোয়ারী বন্দুকযুদ্ধে ও জগমোহনপুর গ্রামের সোহেল সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হন। এদিকে এ ২টি মামলার চার্জশিটে এজাহার বহির্ভূত বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা সাবেক এমপি মনিরুল হক চৌধুরীসহ স্থানীয় বিএনপি ও জামায়াতের আরও ৩০ জন নেতা-কর্মীকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়। পরে আদালতের নির্দেশে ৮ যাত্রী হত্যা মামলাটি অধিকতর তদন্তের জন্য কুমিল্লা ডিবিতে স্থানান্তর করা হয়। ২০১৭ সালের ১৬ নভেম্বর জেলা ডিবি’র পুলিশ পরিদর্শক ফিরোজ হোসেন ওই মামলার অধিকতর তদন্ত শেষে বেগম খালেদা জিয়া, বিএনপি নেতা রুহুল কবির রিজভী, মনিরুল হক চৌধুরী, জামায়াত নেতা ডা. সৈয়দ আবদুল্লাহ মো. তাহেরসহ ৭৭ জনের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ