ঢাকা,মঙ্গলবার 8 January 2019, ২৫ পৌষ ১৪২৫, ১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

পিতার বিরুদ্ধে কন্যার সাংবাদিক সম্মেলন

গৌরনদী (বরিশাল) সংবাদদাতা: হামলা-মামলা হয়রানীর হাত থেকে বাঁচার জন্য সরকার, প্রশাসন ও সচেতন দেশবাসীর সহযোগীতা কামনার আকুতি জানিয়ে গত শনিবার সকালে বরিশালের গৌরনদীর এক মৌলভী পিতার বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করলেন তার একমাত্র কন্যা। এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চলের সৃষ্টি হয়েছে।
জানাগেছে, গতকাল বেলা ১১টায় উপজেলার নলচিড়া ইউনিয়নের কলাবাড়িয়া গ্রামের বাসিন্ধা ও গৌরনদী রাশিদিয়া এমদাদুল উলুম কওমী মাদ্রাসা (থানা মাদ্রাসা)’র সাবেক মৌলভী আবুল বাশার খানের বিরুদ্ধে গৌরনদী প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলন করেন তার একমাত্র কন্য তিন সন্তানের জননী তানিয়া আক্তার নাজমীন।
নিজ শিশুপুত্রকে কোলে নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে দেয়া লিখত বক্তব্যে তানিয়া আক্তার নাজমীন জানান, তার পিতা মৌলভী আবুল বাশার খানের আচার ব্যবহারে নাজমীনের স্বামীর পরিবার অতিষ্ঠ। তাকেসহ তার স্বামী, শ্বশুর, ভাসুর ও দেবরদের বিরুদ্ধে এ যাবত তার পিতা প্রায় ডজন খানেক মিথ্যা মামলা দিয়েছেন। ফলে একান্ত নিরুপায় হয়ে পিতার হামলা-মামলা হয়রানীর হাত থেকে বাঁচার জন্য সরকার, প্রশাসন ও সচেতন দেশবাসীর কাছে আকুতি জানাতে পিতার বিরুদ্ধে তিনি ওই সংবাদ সম্মেলন করতে বাধ্য হয়েছেন।
সংবাদ সম্মেলনে নাজমীন অভিযোগ করেন, পিতা মৌলভী আবুল বাশার খান তার স্বামী দলিল লেখক মোঃ জামাল খানের কাছ থেকে গত ৭/৮ বছর পূর্বে নগদ ৫লক্ষ টাকা ধার নিয়েছিলেন। আর ফেরত দেননি। ওই টাকা ফেরত চাইতে গিয়ে প্রথম বিরোধের সূত্রপাত। এর পর নাজমঅফন তার দুই ফুফুর ওয়ারিশদের কাছ থেকে ২৫(পঁচিশ) শতাংশ সম্পত্তি ক্রয় করে বসত ঘর নির্মাণ, বিভিন্ন গাছপালা রোপন, পুকুরে বিভিন্ন প্রজাতির মাছ চাষসহ ভোগ দখল করছে। ওয়ারিশ সূত্রে তার পিতা তাদের পূর্ব পূরুষদের কাছ থেকে পাওয়া সম্পত্তির প্রায় সবটুকুই ইতোমধ্যে বিক্রি করে দিয়েছেন। তার উদ্দেশ্য ছিল ফুফাত ভাই বোনের সম্পত্তি ক্রয় না করে বিনা মূল্যে (ফাও) ভোগ করার। এ কারনে আমার পিতা ফুফাত ভাই বোনের সম্পত্তি ক্রয় করতে অস্বীকৃতি জানালে আমি আমার পিতা মাতার অনুমতিক্রমে আমার নিজ নামে উক্ত সম্পত্তি ন্যায্য মূল্যে ক্রয় করে নেই। এতে আমার পিতার স্বার্থে আঘাত লাগে। এক পর্যায়ে আমি উক্ত জমির মূল্য পরিশোধে পিতাকে ফেরত দিতে চাইলে তিনি তা ফেরৎ নিতেও অস্বীকৃতি জানান। আমার পিতা আমার ও আমার ও স্বামী, ভাসুর দেবরদের নামে প্রায় ডজন খানেক মিথ্যা ও হয়রানিমূলক মামলা দিয়ে এক নজির বিহীন দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন।
পিতার এ অনৈতিক ও অমানবিক হামলা, মামলার শিকার হয়ে আমার পরিবারের সকল সদস্যের জীবন এখন বিপর্যস্ত। ওই অন্যায় কাজ থেকে নিজ পিতাকে ফেরাতে ও হামলা-মামলা হয়রানীর হাত থেকে নিজকে ও পরিবারকে বাঁচানোর জন্য দেশের সরকার-প্রশাসন ও সচেতন দেশবাসীর প্রতি আকুতি জানিয়ে সংবাদ সম্মেলনে দেয়া লিখিত বক্তব্যের ইতি টানেন নাজমীন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ