ঢাকা, শুক্রবার 11 January 2019, ২৮ পৌষ ১৪২৫, ৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

শীর্ষে ওঠার লড়াইয়ে আজ মুখোমুখি রংপুর ও ঢাকা 

স্পোর্টস রিপোর্টার : বিপিএলে আজ মাঠে নামবে গতবারের দুই ফাইনালিষ্ট রংপুর রাইডার্স ও ঢাকা ডায়নামাইটস। পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে উঠার লক্ষ্যে হাইভোল্টেজ ম্যাচে মুখোমুখি হচ্ছে দল দুটি। মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বেলা ২টায় শুরু হবে ম্যাচটি। বর্তমান চ্যাম্পিয়ন রংপুর এখন পর্যন্ত ৩টি ম্যাচ খেলেছে। এরমধ্যে দু’টিতে জয় ও ১টিতে হেরেছে তারা। ৪ পয়েন্ট নিয়ে রান রেটে পিছিয়ে থাকায় টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে রংপুর। 

৪ পয়েন্ট নিয়ে রান রেটে এগিয়ে থেকে টেবিলের শীর্ষে রয়েছে ঢাকা। তাই কালকের ম্যাচের বিজয়ী দল এককভাবে দখলে নিবে বিপিএলের পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষস্থান। চিটাগং ভাইকিংসের কাছে ৩ উইকেটে হার দিয়ে এবারের আসরে যাত্রা শুরু করে রংপুর। তবে ঘুড়ে দাঁড়াতে সময় নেয়নি তারা। নিজেদের পরের দু’ম্যাচে প্রতিপক্ষকে হারের লজ্জা দেয় মাশরাফির দল। মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের খুলনা টাইটান্সকে ৮ রানে ও কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সকে ৯ উইকেটে হারায় রংপুর। কুমিল্লাকে একাই বিধ্বস্ত করেন মাশরাফি। ৪ ওভার বল করে ১টি মেডেন নিয়ে ১১ রানে ৪ উইকেট নেন তিনি। তার আগুন ঝড়ানো বোলিং-এ মাত্র ৬৩ রানে গুটিয়ে যায় কুমিল্লা। ৬৪ রানের লক্ষ্যমাত্রা ১ উইকেট হারিয়ে ছুয়ে ফেলে রংপুর। তাই শুরুটা ভালো না হলেও, জয়ের ধারায় ফিরেছে রংপুর। এই ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখতেই মরিয়া থাকবে মাশরাফির দল। এদিকে, এখন পর্যন্ত শতভাগ সাফল্য পেয়েছে ঢাকা ডায়নামাইটস। দুই ম্যাচে অংশ নিয়ে দু’টিই জিতেছে তারা। নিজেদের প্রথম ম্যাচে রাজশাহী কিংসকে ৮৩ রানে ও দ্বিতীয় ম্যাচে খুলনা টাইটান্সকে ১০৫ রানে হারিয়েছে ঢাকা। দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে সন্ধ্যা ৭ টায় মাঠে নামবে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। দলটি প্রতিপক্ষ রাজশাহী কিংস। বিপিএলের ষষ্ঠ আসপ্রেথম ম্যাচে সুবিধা করতে পারেনি কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। রংপুর রাইডার্সের বিপক্ষে মাত্র ৬৩ রানে অলআউট হয় তারা। হার মানে ৯ উইকেটের বড় ব্যবধানে। অবশ্য সিলেট সিক্সার্সের বিপক্ষে পরের ম্যাচেই ঘুরে দাঁড়িয়েছে কুমিল্লা। রাজশাহীও তাদের পরের ম্যাচে ঘুরে দাঁড়িয়েছে খুলটা টাইটান্সের বিপক্ষে দারুণ এক জয় তুলে নিয়ে। এই ম্যাচ নিয়ে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের কোচ মো. সালাহউদ্দিন এই ম্যাচে স্থানীয় ক্রিকেটারদের দিকে তাকিয়ে আছেন। তার মতে স্থানীয়রা যেহেতু পরিবেশ-পরিস্থিতির সঙ্গে পরিচিত  সেহেতু তারা রান পেলে বিদেশিদের জন্য সুবিধা হয়। সালাহউদ্দিন বলেন,‘রাজশাহীর বিপক্ষে বিশেষ করে আমাদের স্থানীয় ব্যাটসম্যানদের আরেকটু ভালো ভূমিকা পালন করতে হবে। কারণ তারা  যেহেতু এখানে খেলে অভ্যস্ত বেশি, তারা রান করতে পারলে আমাদের বাইরের ব্যাটসম্যানদের জন্য অনেক সুবিধা হবে। আমাদের স্থানীয় ক্রিকেটাররা যদি একটু ভালো খেলে তাহলে আমার মনে হয়  যে তাহলে দল একটি ভালো অবস্থানে যাবে এবং আমি মনে করি যে ব্যাটিং লাইন-আপ যেহেতু আমাদের লম্বা আছে সুতরাং আমরা যদি শুরুটা ভালো করতে পারি তাহলে মনে হয় বড় রান করতে পারব। পুরো টুর্নামেন্টেই এখনও স্থানীয়রা ভালো করতে পারছে না। আমার কাছে মনে হয় এর আগে  যেকয়টি টুর্নামেন্ট হয়েছে সবগুলোতে স্থানীয়রা ভালো ভূমিকা রেখেছিল। তবে এবার ভালো খেলতে পারছে না, এটি একটি চিন্তার বিষয়। তবে আমার মনে হয় তারা খুব দ্রুতই মানিয়ে নিবে। যেহেতু মাত্র দুটি ম্যাচ গিয়েছে এবং শীতকালে একটু সমস্যা তো হয়ই। কারণ বলের মুভমেন্ট থাকে, সেই সাথে উইকেটটিও ব্যাটে বলে আসে না, এই বিষয়টি মানিয়ে নেয়া খুব বেশি জরুরি। আশা করি তারা দ্রুতই মানিয়ে নিবে এটা।' 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ