ঢাকা, বৃহস্পতিবার 22 August 2019, ৭ ভাদ্র ১৪২৬, ২০ জিলহজ্ব ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

শরীয়তপুরে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ২

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক:

 

শরীয়তপুরে পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে জাহাঙ্গীর আকন্দ (৪০) ও রাসেল ফকির (৩৪) নামে দুজন নিহত হয়েছে। 

পুলিশের দাবি, নিহত দুই যুবক আন্তঃজেলা ডাকাত দলের সদস্য। তাদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় একাধিক ডাকাতি মামলাসহ বিভিন্ন মামলা রয়েছে।

রোববার রাত আড়াইটার দিকে সদর উপজেলার দেওভোগ গ্রামে এ ‘বন্দুকযুদ্ধের’ ঘটনা ঘটে।

নিহত জাহাঙ্গীর আকন মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলার সূর্যমণি গ্রামের সিকান্দার আকনের ছেলে ও রাসেল হাওলাদার মাদারীপুর রাজৈর থানার চাপাতলী গ্রামের মৃত আরশাদ আলী হাওলাদারের ছেলে।

শরীয়তপুর সদর উপজেলার পালং মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুজ্জামান জানান, ঢাকা জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) গত বৃহস্পতিবার জাহাঙ্গীর ও রাসেলকে আটক করে। পরদিন তাঁদের শরীয়তপুর জেলা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়। জেলা পুলিশ সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) হুমায়ুন কবীর ও ডিবির পরিদর্শক আজহারুল ইসলাম দুজনকে নিয়ে ঢাকা, বগুড়া এবং মাদারীপুরের কালকিনী ও সদর উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালায়। তাঁদের দেওয়া তথ্যের ওপর ভিত্তি করে গত রাতে সদর উপজেলার দক্ষিণ দেওভোগ গ্রামে অভিযানে যায় পুলিশ। সেখানে এই দুই ডাকাতের সহযোগীরা তাঁদের ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে। এ সময় তারা পুলিশের ওপর গুলি চালায়। তখন পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। একপর্যায়ে তাদের সহযোগীদের কয়েকজন পালিয়ে যায়। পুলিশ দুটি লাশ পড়ে থাকতে দেখে। লাশ দুটি তারা শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে।

এ সময় পুলিশের তিন সদস্য আহত হন। 

 

ঘটনাস্থল থেকে একটি ওয়ান শুটার , তিনটি চায়নিজ কুড়াল, আটটি রামদা, ছোরা দুটি, ককটেল নয়টি এবং একটি তালা কাটার যন্ত্র পায় পুলিশ। এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে দুটি মামলা করবে বলেও জানান ওসি মনিরুজ্জামান।

 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ