ঢাকা, রোববার 20 January 2019, ৭ মাঘ ১৪২৫, ১৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

অভিভাবকরা সচেতন থাকলে সন্তানদের সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তোলা সম্ভব

গতকাল শনিবার তামিরুল মিল্লাত কামিল মাদরাসা টঙ্গীর অভিভাবক সমাবেশে বক্তব্য রাখেন তামিরুল মিল্লাত ট্রাস্টের সেক্রেটারি ও গভর্নিং বডির সদস্য অধ্যক্ষ মাওলানা মুহাম্মদ যাইনূল আবেদীন -সংগ্রাম

তা’মীরুল মিল্লাত কামিল মাদ্রাসা, টঙ্গীর উদ্যোগে গতকাল শনিবার সকাল ১০ টায় শিক্ষার্থীদের শিক্ষা ও নৈতিক মানোন্নয়নের বিষয়ে প্রতিষ্ঠানের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মাওলানা মিজানুর রহমানের সভাপতিত্বে অভিভাবক সমাবেশ ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ, তা’মীরুল মিল্লাত ট্রাস্টের  সেক্রেটারি ও গভর্নিং বডির সদস্য অধ্যক্ষ মাওলানা মুহাম্মদ যাইনুল আবেদীন। অনুষ্ঠানের শুরুতে অর্থসহ কুরআন তেলাওয়াত করেন মাওলানা আব্দুল কাইয়ূম। 

প্রধান অতিথির বক্তব্যে অধ্যক্ষ মাওলানা মুহাম্মদ যাইনুল আবেদীন বলেন, তা’মীরুল মিল্লাত প্রতিষ্ঠিত হয়েছে ইসলাম ও জাগতিক শিক্ষার সমন্বয়ে সামাজিক পরিবর্তনের জন্য। প্রতিষ্ঠানটি জনসংখ্যাকে জনশক্তিতে রূপান্তরিত করার লক্ষ্যে কাজ করে চলেছে। এক্ষেত্রে অভিভাবকদের গঠনমূলক পরামর্শ ও সহযোগিতা একান্ত প্রয়োজন। অভিভাবকগণ নিজ নিজ সন্তানের দায়িত্বের বিষয়ে সচেতন থাকলে তাদেরকে সুনাগরিক হিসাবে গড়ে তোলা সহজ। ব্যক্তিগত ও পারিবারিক জীবনে সততা, স্বচ্ছতা ও দ্বীনদারিতার পরিচয় দিতে পারলে সন্তান এমনিতেই ভাল হয়ে যাবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে প্রতিষ্ঠানটির প্রাক্তন উপাধ্যক্ষ মাওলানা সফিক উল্লাহ আল মাদানী শিক্ষার্থীদের পড়া-লেখা ও নৈতিক মানোন্নয়নে প্রতিষ্ঠানের সাথে অভিভাবকগণের নিয়মিত যোগাযোগের উপর গুরুত্বারোপ করেন।

গভর্নিং বডির সদস্য ও অভিভাবক প্রতিনিধি এডভোকেট গোলাম মোস্তফা বিশেষ অতিথির বক্তব্যে শিক্ষার্থীদের সার্বিক মানোন্নয়নে প্রতিষ্ঠানের নানামূখী পদক্ষেপের কথা উল্লেখ করেন। তিনি সংশ্লিষ্ট দায়িত্বশীল ও শ্রেণি শিক্ষকের সাথে নিয়মিত যোগাযোগ ও গঠনমূলক পরামর্শ প্রদানের বিষয়ে অভিভাবকগণকে উৎসাহিত করেন। 

উদ্বোধনী বক্তব্যে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মাওলানা মিজানুর রহমান অভিভাবকমন্ডলীকে প্রতিষ্ঠানের আহবানে সাড়া দেয়ার জন্য মোবারকবাদ জানান। তিনি বলেন, শিক্ষার্থীদের পড়া-লেখা ও নৈতিক মানোন্নয়নে শিক্ষক অভিভাবক উভয়ের দিক থেকে চেষ্টা ও সহযোগিতা প্রয়োজন। এক্ষেত্রে অভিভাবকদের দায়িত্ব একটু বেশি। 

সভায় উপস্থিত অভিভাবকগণের মধ্যে থেকে কয়েকজন শিক্ষার্থীদের পড়া-লেখা ও নৈতিক মানোন্নয়নের ক্ষেত্রে বিভিন্ন সমস্যার বিষয়ে উল্লেখ করে প্রতিষ্ঠানের আরো সহযোগিতামূলক ভূমিকা কামনা করেন। শ্রেণি শিক্ষকদের সাথে মতবিনিময় শেষে সবাইকে ধন্যবাদ জ্ঞাপনের মাধ্যেমে সভার সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ