ঢাকা, শনিবার 24 August 2019, ৯ ভাদ্র ১৪২৬, ২২ জিলহজ্ব ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

টেকনাফে গ্রেপ্তারের পর মাদকের আসামি বন্দুকযুদ্ধে নিহত

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক:

কক্সবাজারের টেকনাফে মাদক মামলার এক আসামি গ্রেপ্তারের পর পুলিশ ও বিজিবির সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছেন। আজ সোমবার ভোরে টেকনাফ পৌরসভার উত্তর জালিয়াপাড়ায় ওই ঘটনা ঘটে বলে বিজিবির টেকনাফ-২ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মো. আছাদুজ্জামান চৌধুরী জানান।

নিহত শামসুল আলম ওরফে বার্মাইয়া শামসু (৩৫) টেকনাফের হ্নীলা ইউনিয়নের পশ্চিম সিকদার পাড়ার মোহাম্মদ হোসাইনের ছেলে।

পুলিশ বলছে, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের করা ‘শীর্ষ মাদক চোরাকারবারির’ তালিকায় শামসুর নাম ছিল। তার বিরুদ্ধে টেকনাফ থানায় মাদক আইনের ১০টি মামলা রয়েছে।

ওসি প্রদীপ বলেন, পলাতক আসামি শামসুকে রোববার বিকালে হ্নীলা থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদে তার কাছে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে ইয়াবা উদ্ধারে তাকে নিয়ে অভিযানে বের হয় পুলিশের একটি দল।

“ভোর রাতে পুলিশ শামসুলকে নিয়ে দমদমিয়া চেকপোস্ট এলাকায় গেলে সেখানে অবস্থান নিয়ে থাকা তার সহযোগীরা গুলি ছোড়ে। পুলিশও এ সময় আত্মরক্ষার জন্য পাল্টা গুলি চালায়। এক পর্যায়ে শামসু গুলিবিদ্ধ হয়। পরে তার সহযোগীরা পালিয়ে যায়।”

গুলিবিদ্ধ শামসুলকে টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন বলে জানান ওসি।

তিনি বলেন, ঘটনাস্থলে তল্লাশি চালিয়ে দুটি বন্দুক, ১২ রাউন্ড গুলি ও ২০ হাজার ইয়াবা পাওয়া যায়। এ অভিযানের সময় পুলিশের তিন সদস্যও আহত হন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ