ঢাকা, শুক্রবার 25 January 2019, ১২ মাঘ ১৪২৫, ১৮ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

সিরিয়ার ইদলিবের নিরাপত্তার প্রতিশ্রুতি এরদোগান-পুতিনের

২৪ জানুয়ারি, আল-জাজিরা : রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন এবং তার প্রতিপক্ষ তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রেসেপ ত্যাইয়েপ এরদোগান জানিয়েছেন, সিরিয়ার ইদলিব প্রদেশের পরিস্থিতি স্থিতিশীল করার জন্য তারা প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিয়ে আলোচনা করেছে যেখানে "সন্ত্রাসী" সংগঠনগুলির বিরুদ্ধে যৌথ লড়াই চলমান থাকবে।

এরদোগান তার কিছু কেবিনেট সদস্যের সঙ্গে বুধবার এক দিনের সফরে মস্কোতে গিয়ে এই বৈঠকে অংশগ্রহন করেন। রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় পক্ষ থেকে বুধবার জানানো হয়, ইদলিব প্রদেশে আগে থেকেই মস্কো এবং আঙ্কারা একটি ডি-এসকলেশন জোন তৈরি করার চেষ্টা করেছিলো। কিন্তু প্রদেশটি আগে থেকেই বিদ্রোহী দল তাহরির আল শামের নিয়ন্ত্রনে ছিলো। যা পূর্বে আল কায়দার সঙ্গে যুক্ত ছিলো।

এরদোগানের সঙ্গে একটি যৌথ সংবাদ সম্মেলনে পুতিন বলেন, ‘দুঃখজনকভাবে সেই অঞ্চলে অনেক সমস্যা রয়েছে এবং আমরা তা দেখছি।’ তিনি আরও বলেন, তুরস্ক পরিস্থিতি ঠিক করার জন্য অনেক চেষ্টা করছিলো। কিন্তু আঙ্কারা ও মস্কো উভয়ের-ই সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলোর কর্মকান্ড ধ্বংস করার জন্য আরও পদক্ষেপ গ্রহন করার প্রয়োজন ছিলো। গত বছর সেপ্টেম্বরে তুরস্ক ও রাশিয়ার মধ্যে চুক্তি স্বাক্ষরিত হলে ইদলিবে এইচটিএস যোদ্ধাদের নিরস্ত্র ও অপসারণের অঙ্গীকার করেছিলো তুরস্ক। কিন্তু রাশিয়া সমর্থিত সিরিয়া সরকারকে ইদলিবে নিরস্ত্র করার কাজ শুরু করতে বাঁধা প্রধান করে। কারণ সেখানে প্রায় ৩০ লাখ মানুষ বাসবাস করতো। পুতিন জানিয়েছেন, তিনি খুব দ্রুত একটি সম্মেলনে যোগ দিতে রাজি হয়েছেন যেখানে রাশিয়া, তুরস্ক ও ইরান আস্তানা শন্তি ট্র্যাকের অধীনে সিরিয়ার পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করতে পারে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ