ঢাকা, মঙ্গলবার 05 February 2019, ২৩ মাঘ ১৪২৫, ২৯ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

ট্রাম্পকে কেন ক্ষমা করবেন না মিশেল ওবামা!

৪ ফেব্রুয়ারি, ইন্টারনেট : নিজের স্মৃতিকথাতে, প্রাক্তন মার্কিন ফার্স্ট লেডি মিশেল ওবামা তার স্বামী বারাক ওবামার বিরুদ্ধে "জন্মসংক্রান্ত" ষড়যন্ত্রের তত্ত্ব ছড়িয়ে দেয়ার জন্য রাষ্ট্রপতি ট্রাম্পকে দোষারোপ করেছেন। নিজের স্মৃতিকথা "বিকামিং"-এর উদ্ধৃত অংশগুলীতে মিশেল ওবামা বলেছেন যে ট্রাম্প দাবি করেছিলেন যে, তার স্বামী বারাক ওবামা "জেনোফোবিক", ওবামা নাকি আসলে আমেরিকায় জন্মগ্রহণ করেননি। এই শব্দটি ব্যবহার করার জন্য ট্রাম্পকে কখনো "ক্ষমা করবেন না" তিনি।

সাবেক ফার্স্ট লেডি লিখেছিলেন, "পুরো ব্যাপারটিই ছিল উদ্ভট এবং নীচু অর্থবাহী, যার মধ্যে অন্তর্নিহিত ছিল জাতিবিদ্বেষ এবং জেনোফোবিয়া।"

"কিন্তু এটি বিপজ্জনক ছিল, ইচ্ছাকৃতভাবে বিদ্বেষ এবং হিংসা জাগিয়ে তোলা হয়েছিল। কী হত যদি মানসিক ভারসাম্যহীন কেউ বন্দুক নিয়ে ওয়াশিংটনে চলে যেত? যদি কোনো ব্যক্তি আমাদের মেয়েদের টার্গেট করত? ডোনাল্ড ট্রাম্প জোর গলায় আমাদের পরিবারকে ঝুঁকির মধ্যে ফেলে দিয়েছিলেন এবং এই জন্য আমি তাঁকে ক্ষমা করব না” বলেন মিশেল।

১৩ নভেম্বরে প্রকাশ পায় তার লেখা এই বইটি। শিকাগোতে তার জীবনের প্রথম দিকের সময় থেকে শুরু করে একজন ফার্স্ট লেডি হয়ে ওঠার সফর রয়েছে এই বইতে। এবং ২০১৬ সালে ট্রাম্পের নির্বাচনে জয়ের পর তার মানসিক ভাবে ভেঙে পড়া এবং অবিশ্বাসের অনুভূতির খসড়াও রয়েছে এই লেখায়।

২০১৭ সালে হোয়াইট হাউস ছাড়ার পর থেকেই মিশেল ওবামা বেশিরভাগ সময়েই বর্তমান প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সরাসরি সমালোচনা করে এসেছেন। বইটিতে অন্যান্য সমালোচনার মধ্যে বড় অংশ জুড়ে রয়েছে মহিলাদের নিয়ে ট্রাম্পের অশ্লীল বক্তব্য। কুখ্যাত "অ্যাক্সেস হলিউড" টেপ এবং ২০১৭ সালের প্রতিপক্ষ হিলারি ক্লিনটনের সঙ্গে বিতর্কের সময় ট্রাম্পের কুরুচিকর মন্তব্য নিয়েও কড়া সমালোচনা করেছেন মিশেল ওবামা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ