ঢাকা, বৃহস্পতিবার 21 February 2019, ৯ ফাল্গুন ১৪২৫, ১৫ জমাদিউস সানি ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

সেই দুই পুলিশ কর্মকর্তা গ্রেফতার

এসআই সেকেন্দার হোসেন ও এএসআই মাজহারুল ইসলাম।

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক:

মানিকগঞ্জের সাটুরিয়ায় এক তরুণীকে বাংলাতে আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় দুই পুলিশ কর্মকর্তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।এর আগে ওই দুই পুলিশ কর্মকর্তাকে থানা থেকে প্রত্যাহার করা হয়।

মঙ্গলবার (১২ ফেব্রুয়ারি) সকালে তাদের গ্রেফতার করা হয় বলে জানিয়েছেন সাটুরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুর রহমান।

এ দু’জন হলেন- সাটুরিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সেকেন্দার হোসেন ও সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) মাজহারুল ইসলাম। দু’জনকে আদালতে নেওয়ার প্রক্রিয়া চলছে বলে জানা গেছে।

ধর্ষণের শিকার ওই তরুণী সোমবার (১১ ফেব্রুয়ারি) রাতে সাটুরিয়া থানায় অভিযুক্ত দুই পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মামলা করেন। তার আগে দু’জনের বিরুদ্ধে জেলা পুলিশ সুপারের (এসপি) কাছে লিখিত অভিযোগ করেছিলেন তিনি। তখন দুই কর্মকর্তাকেই থানা থেকে প্রত্যাহার করে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়।

জানা যায়, খালার সাথে পাওনা টাকা চাইতে গেলে সাটুরিয়া থানার এসআই সেকেন্দার হোসেন ও এএসআই মাজহারুল ইসলাম ডাকবাংলোর একটি রুমে ২ দিন আটকে রেখে ওই তরুণীকে ধর্ষণ করে। এসময় জোর করে তরুণীকে ইয়াবা সেবন করান দুই পুলিশ কর্মকর্তা। গত শুক্রবার তাদের ডাকবাংলো থেকে বের করে দেয়ার পর ঘটনা জানাজানি হয়। এরপর শনিবার রাতে ওই দুই পুলিশ কর্মকর্তাকে থানা থেকে প্রত্যাহার করে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়। রোববার তরুণী মানিকগঞ্জ পুলিশ সুপারের কাছে লিখিত অভিযোগ করলে দুই সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।

তদন্ত কর্মকর্তা সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হাফিজুর রহমান জানান,প্রাথমিক তদন্তে ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে।

এর আগে সোমবার দুপুরে মানিকগঞ্জ পুলিশ সুপার রিফাত রহমান শামীম সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন তদন্ত কমিটি কাজ শুরু করেছে।অভিযোগ প্রমাণিত হলে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। পুলিশ বলে তাদের কোন ছাড় দেয়া হবে না।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ