ঢাকা, বুধবার 13 February 2019, ১ ফাল্গুন ১৪২৫, ৭ জমাদিউস সানি ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

ঠাকুরগাঁওয়ে বিজিবি-এলাকাবাসী সংঘর্ষে নিহত ৩ আহত ১৭

ঠাকুরগাঁও সংবাদদাতা : ঠাকুরগাঁওয়ে বর্ডারগার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ও এলাকাবাসীর মধ্যে সংঘর্ষে ৩ জন নিহত হয়েছে। বিজিবি সদস্যসহ অন্তত ১৭ জন আহত হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার বেলা ১২ টার দিকে হরিপুর উপজেলার বহরমপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
এলাকাবাসী ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বহরমপুর গ্রামের বাসিন্দা মাহবুব বিক্রির উদ্দেশ্যে একটি গরু নিয়ে পার্শবর্তী যাদুরানী হাটে যাওয়ার পথে চোরাই সন্দেহে স্থানীয় বেতনা ক্যাম্পের বিজিবি সদস্যরা তাকে আটক করে ও গরুটি ক্যাম্পে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এতে মাহবুব ও তার পরিবার বাধা দেয়, ধস্তাধস্তির ঘটনা ঘটে। পরে মাহবুব এলাকাবাসিকে সাথে নিয়ে গরু ছিনিয়ে আনতে গেলে উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। এক পর্যায়ে গুলী ছুঁড়ে বিজিবি। এতে গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হয় হরিপুরের রুহিয়া গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে নবাব (৩০), বহরমপুর গ্রামের নুর ইসলামর ছেলে জয়নুল (১৪) ও আব্দুর রহিমের ছেলে সাদেক আলী (৩৫)। এদের মধ্যে দুই জন পথচারি বলে জানিয়েছে এলাকাবাসি।
আহতদের মধ্যে আব্দুল হান্নান (৬০), জেবুন্নেসা (৩৫), মো. মিঠুন (১৯), ঈশাদ (৩২), তৈমুর রহমান (২৫), রাসেল মিয়া (১৭), আনসারুল ইসলাম(২৯), সাদেকুল ইসলাম (৩০) জয়নুল (১৩) নুর নাহার বেগম এর (৫৫) নাম জানা গেছে।
হরিপুর উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্স এর চিকিৎসক আব্দুস সামাদ জানান আহতদের শরীর থেকে গুলি বের করা হয়েছে, তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য দিনাজপুর মেডিকেলে পাঠানো হয়েছে।  এ ব্যপারে ঠাকুরগাঁও ৫০ বিজিবি’র অধিনায়ক লে. কর্ণেল তুহিন মো. মাসুদ জানান, সকালে আমাদের সদস্যরা চোরাই সন্দেহে চারটি গরু সিজ করে ফেরার সময় চোরাকারবারিরা তাদের উপর দেশীয় অস্ত্রসহ হামলা চালায়। এতে আমাদের চার বিজিবি সদস্য আহত হয়। পরিস্থিতির একপর্যায়ে আত্মরক্ষার্থে গুলি চালায় বিজিবি।  ঘটনাস্থলসহ আশপাশের এলাকার পরিস্থিতি আইন শৃংখলা বাহিনীর নিয়ন্ত্রণে রয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলা পুলিশ সুপার মনিরুজ্জামান।  তবে এলাকাবাসীর মধ্যে আতংক বিরাজ করছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ