ঢাকা, শনিবার 23 March 2019, ৯ চৈত্র ১৪২৫, ১৫ রজব ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

সুদানে জরুরি অবস্থা জারি

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক:

সুদানের প্রেসিডেন্ট ওমর আল-বশির দেশজুড়ে এক বছরের জন্য জরুরি ব্যবস্থা জারি করে কেন্দ্রীয় সরকার বিলুপ্ত এবং সব অঙ্গরাজ্যের গভর্নরদের বরখাস্ত করেছেন।

পরে তিনি গভর্নরদের শূন্য পদে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের নিয়োগ দেন।

আজ শনিবার বিবিসি অনলাইনের খবরে বলা হয়, এর আগে সুদানের জাতীয় নিরাপত্তা ও গোয়েন্দা সার্ভিস (এনআইএসএস) জানিয়েছিল, প্রেসিডেন্ট বশির পদত্যাগ করতে যাচ্ছেন। কয়েক সপ্তাহ ধরে প্রেসিডেন্ট বশির সরকারবিরোধী বিক্ষোভের কেন্দ্রবিন্দুতে ছিলেন।
তার এ ঘোষণার পর ওমদুরমান শহরে বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষেরও খবর পাওয়া গেছে।
জরুরি অবস্থা জারির আগে দেশটির ন্যাশনাল সিকিউরিটি অ্যান্ড ইন্টিলিজেন্ট সার্ভিসেস (এনআইএসএস) প্রেসিডেন্টকে পদত্যাগ করার আহ্বান জানিয়েছিলেন।

টেলিভিশনে দেওয়া ভাষণে বশির পার্লামেন্টকে সংবিধানের বেশকিছু সংশোধনী স্থগিত রাখতেও বলেছেন; ওইসব সংশোধনীতে তাকে ফের নির্বাচনে দাঁড়ানোর অনুমতি দেওয়া হয়েছিল।

বিক্ষোভকারীরা দেশকে অস্থিতিশীল করার চেষ্টা করছে বলেও অভিযোগ করেছেন ৭৫ বছর বয়সী প্রেসিডেন্ট।

“এক বছরের জন্য দেশজুড়ে জরুরি অবস্থা জারি করছি। কেন্দ্র ও রাজ্য পর্যায়ের সব সরকারও বিলুপ্ত করা হচ্ছে,” ভাষণে বলেছেন বশির।

কয়েক ঘণ্টা পর দুটি পৃথক ডিক্রিতে তিনি ১৮টি অঙ্গরাজ্যের নতুন গভর্নর হিসেবে সেনা ও নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের নিয়োগ এবং পররাষ্ট্র, প্রতিরক্ষা ও বিচার মন্ত্রীসহ আগের সরকারের ৫ মন্ত্রীকে পুনরায় দায়িত্ব দেন।

রুটি ও  জ্বালানিতে সরকারি ভর্তুকি কমালে ডিসেম্বরে সুদানজুড়ে তীব্র বিক্ষোভ শুরু হয়। পরে এ আন্দোলন বশিরের ৩০ বছর ধরে চলা শাসনব্যবস্থার বিরোধিতায় রূপ নেয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ