ঢাকা, সোমবার 25 February 2019, ১৩ ফাল্গুন ১৪২৫, ১৯ জমাদিউস সানি ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

বিমান ছিনতাইয়ের হুমকিতে ভারতের সব এয়ারপোর্টে সতর্কতা

ইন্ডিয়া টুডে : ফোনে বিমান ছিনতাইয়ের হুমকি পাওয়ার পর দেশের সব বিমানবন্দরে সর্বোচ্চ সতর্কতা জারি করেছে ভারত। এর ফলে দেশটির প্রতিটি বিমানবন্দরে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। এছাড়া বিমানবন্দরে প্রবেশ করা সব গাড়ির ওপর বাড়তি নজর রাখা হচ্ছে। সম্প্রতি মুম্বাইয়ের এয়ার ইন্ডিয়ার কন্ট্রোল রুমে একটি উড়ো ফোনে বিমান ছিনতাইয়ের হুমকি দেয়া হয়। এতে বলা হয়, ছিনতাই হতে পারে পাকিস্তানগামী একটি বিমান। মুম্বইয়ে এয়ার ইন্ডিয়ার কন্ট্রোল রুমে হুমকি বার্তাটি আসার পরেই পুরো ভারতজুড়ে প্রায় সব বিমানবন্দরের ছবি বদলে গেছে। জারি করা হয়েছে ‘হাই অ্যালার্ট’।নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা সিআইএসএফকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে- পার্কিং এলাকায় প্রবেশ করছে এমন প্রত্যেকটি গাড়ি তল্লাশি করতে। শুধু তাই নয়, বিমানবন্দরের আশপাশে প্রত্যেকটি গুরুত্বপূর্ণ প্রবেশ ও নির্গমন পথে নিরাপত্তাও বাড়ানো হয়েছে। পুলওয়ামার জঙ্গী হামলার পর আর কোনো ধরনের ঝুঁকি নিতে চায়নি বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ। এছাড়া ওই হুমকি আসার পর উপসাগরীয় অঞ্চল ও পাকিস্তানগামী কিছু বিমানে সেকেন্ডারি ল্যাডার পয়েন্ট চেক (এসএলপিসি) করা হয়েছে। এ ক্ষেত্রে বিমানে ওঠার আগের মুহূর্তে যাত্রীদের ফের তল্লাশি করা হয়। সিআইএসএফের এক কর্মকর্তা বলেন, ‘আমরা যাত্রীদের অনুরোধ করেছি- হাতে অনেকটা সময় নিয়ে বিমানবন্দরে পৌঁছতে। কারণ একাধিকবার তল্লাশির কারণে তাদের লম্বা লাইনে দাঁড়াতে হতে পারে।’ গত ১৪ ফেব্রুয়ারি ভারত-শাসিত জম্মু কাশ্মীরের পুলওয়ামাতে আত্মঘাতী হামলায় চল্লিশজনেরও বেশি ভারতীয় আধা সামরিক বাহিনীর সদস্য নিহত হয়। ভয়াবহ ওই আত্মঘাতী হামলার দায় স্বীকার করেছে পাকিস্তানভিত্তিক জঙ্গী গোষ্ঠী জয়েশ-ই-মোহাম্মদ। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুই দেশের মধ্যে কূটনৈতিক সংঘাত চরমে উঠেছে। পরস্পর পরস্পরকে দোষারোপ এবং হুমকি পাল্টা হুমকি দিচ্ছে। এমন অবস্থায় ওই উড়ো ফোনকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিচ্ছে ভারত।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ