ঢাকা, মঙ্গলবার 26 February 2019, ১৪ ফাল্গুন ১৪২৫, ২০ জমাদিউস সানি ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

কুষ্টিয়ায় ধর্ষণের দায়ে আসামীর যাবজ্জীবন

কুষ্টিয়া সংবাদদাতা : কুষ্টিয়ার মিরপুরে প্রতিবেশী ভাড়াটিয়া এক মহিলাকে ধর্ষণের দায়ে নান্টু নামে এক আসামীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানার আদেশ দিয়েছে আদালত।

সোমবার দুপুরে কুষ্টিয়ার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক (জেলা ও দায়রা জজ) মুন্সি মশিয়ার রহমান এ আদেশ দেন। রায় ঘোষণার সময় দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

আদালত সূত্রে জানা যায়, আসামি নান্টু ও ভুক্তভোগী মহিলা কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার চিথলিয়া গ্রামের শাফায়েত হোসেনের বাড়িতে ভাড়াটিয়া হিসেবে থাকতেন। পাশাপাশি ঘর হওয়ায় নান্টু প্রায় রেহেনাকে যৌণ হয়রানি করে আসছিলেন। ২০১৫ সালের ৩০ মার্চ রাতে নান্টু ওই মহিলার ঘরে ঢুকে তাকে ধর্ষণ করে।

 ভুক্তভোগীর চিৎকারে স্থানীয়রা ছুটে আসলে নান্টু পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে ভুক্তভোগীকে উদ্ধার করে আহতাবস্থায় কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঘটনার পাঁচমাস পর ভুক্তভোগী রেহেনা বেগমের মৃত্যু হয়। এদিকে ঘটনার পরের দিন বাড়ির মালিক শাফায়েত হোসেন বাদী হয়ে মিরপুর থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন।

জেলা ও দায়রা জজ আদালতের এপিপি অ্যাডভোকেট আকরাম হোসেন দুলাল জানান, পুলিশের দেয়া তদন্ত প্রতিবেদনে বিজ্ঞ আদালত দীর্ঘ স্বাক্ষ্য শুনানি শেষে আসামির বিরুদ্ধে ধর্ষণের ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগ সন্দেহাতীত ভাবে প্রমাণিত হয়েছে। তাই আসামির যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত।

রায় ঘোষণার সময় দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন। পরে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ