ঢাকা, মঙ্গলবার 26 February 2019, ১৪ ফাল্গুন ১৪২৫, ২০ জমাদিউস সানি ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

রাজউকের ওপর আল্লাহর অভিশাপ -শিল্প প্রতিমন্ত্রী

গতকাল সোমবার কামরাঙ্গীর চর খলিফা ঘাট এলাকায় কাজী বাড়ী গলির ৫ম তলা বাড়িটি হেলে পড়েছে -সংগ্রাম

স্টাফ রিপোর্টার: রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (রাজউক) ওপর আল্লাহর অভিশাপ রয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার। তিনি বলেছেন, ঢাকা শহর বসবাসের অনুপযোগী হয়ে পড়ার জন্য দায়ী রাজউক।
পুরান ঢাকার চকবাজারে অগ্নিকাণ্ডের পর আশু করণীয় নিয়ে গতকাল সোমবার শিল্প মন্ত্রণালয় আয়োজিত এক বৈঠকে প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন। এ সময় রাজউকসহ সরকারের বিভিন্ন সংস্থার প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।
রাজধানীর মতিঝিলে শিল্প মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত বৈঠকের শেষ দিকে সাংবাদিকদের প্রবেশ করতে দেওয়া হয়। তখন বক্তব্য দিচ্ছিলেন কামাল আহমেদ মজুমদার। পাশে ছিলেন শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন।
কামাল আহমেদ মজুমদার কথা বলতে গিয়ে রাজউকের প্রসঙ্গে চলে যান। তিনি বলেন, রাজউক ২০ ফুট রাস্তার পাশে ১৪-১৫ তলা ভবনের অনুমোদন কীভাবে দেয়। তারা (রাজউক) পরিকল্পনায় রাস্তার প্রশস্ততা রাখে এক রকম। পরে অর্থনৈতিক সুবিধা পেলে রাস্তা সরু করে ফেলে।
প্রতিমন্ত্রী অভিশাপের কথা বলেন রাজউকের জমি অধিগ্রহণের বিপরীতে প্লট বুঝিয়ে দেওয়ার কথা বলতে গিয়ে। তিনি বলেন, রাজউক আবাসন প্রকল্প করার জন্য মানুষের শত শত বিঘা জমি অধিগ্রহণ করে। কিন্তু শর্তানুযায়ী অধিগ্রহণ করা জমির মালিকদের যে প্লট দেওয়ার কথা, সেটা অনেক ক্ষেত্রেই দেয়নি। মানুষগুলো যুগের পর যুগ ঘুরছে।
 বৈঠকে চকবাজারের অগ্নিকাণ্ডের ক্ষেত্রে সরকারি সংস্থাগুলোর ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন কামাল আহমেদ মজুমদার। তিনি বলেন, যাদের লাইসেন্স নেই, তাদের ব্যবসা কেন করতে দেওয়া হলো। এ অবস্থা এক দিনে তৈরি হয়নি। সরকারি সংস্থার কর্মচারীরা ঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করলে আজকে এ অবস্থা হতো না।
অনুষ্ঠানে শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন বলেন, সরকার ছয় মাসের মধ্যে রাসায়নিক পল্লির জমি তৈরি করে দেবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ