ঢাকা, সোমবার 4 March 2019, ২০ ফাল্গুন ১৪২৫, ২৬ জমাদিউস সানি ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

আওতা বাড়াতে প্রয়োজনে ট্যাক্সহার কমানো হবে -এনবিআর

স্টাফ রিপোর্টার : দেশের উন্নয়নে ট্যাক্সের আওতা বাড়াতে প্রয়োজনে ট্যাক্সহার কমানো হবে বলে জানিয়েছেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান মো. মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া।
গতকাল রোববার বিকেলে রাজধানীর রমনার বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিতে ঢাকা কর অঞ্চল-১ আয়োজিত রাজস্ব নিয়ে এক অংশগ্রহণমূলক আলোচনা অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।
 কর অঞ্চল-১ এর কমিশনার নাহার ফেরদৌসী বেগমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এনবিআর সদস্য (কর প্রশাসন ও মানবসম্পদ ব্যবস্থাপনা) কালিপদ হালদার, সোনালী ব্যাংক লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ওবায়েদ উল্লাহ আল মাসুদ, রিলায়েন্স ফিন্যান্সের এমডি ড. জালাল উদ্দিন, কাতার এয়ারওয়েজের কান্ট্রি ম্যানেজার (বাংলাদেশ) জয়প্রকাশ নায়ার।
অনুষ্ঠানে দেশের সকল ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান ও এয়ারলাইন্স থেকে ভ্রমণ করদাতা প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা বক্তব্য রাখেন।
তিনি বলেন, ভ্যাটদাতারা যাতে খুব সহজে ট্যাক্স দিতে পারেন সেই ব্যবস্থা করা হবে। বহু মানুষ এখনও ট্যাক্স আওতার বাইরে। বিশেষ করে যারা ছোট ব্যবসা করেন তাদের এ আওতায় আনলে ট্যাক্স বহুগুনে বেড়ে যাবে। পাশাপাশি বর্তমানে বিদ্যমান ট্যাক্সহার কমিয়ে হলেও ট্যাক্সের আওতা বাড়ানো হবে।
ট্যাক্সের আওতা বাড়ানো নিয়ে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান বলেন, সবাইকে ট্যাক্স প্রদানে উৎসাহিত করতে প্রতিটি ফ্ল্যাট বাসায় আমাদের লোকবল যাবে। ট্যাক্স প্রদানে ভীতি দূর করে কীভাবে করের আওতা বাড়ানো যায় সে বিষয় নিয়ে আমরা কাজ করছি।
এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, বর্তমান দেশের মানুষ ১৮ কোটি অথচ এর তুলনায় ট্যাক্স রিটার্ন দেয় মাত্র ২০ লাখ। সরকার বিশ্বের সব উন্নত দেশের তুলনায় বেশি জনকল্যাণে কাজ করে। অথচ ট্যাক্স দেওয়া মানুষের সংখ্যা কম, যা খুব লজ্জার।
তিনি আরো বলেন, কর্মকর্তাদের প্রত্যেককে সৎ হতে হবে। দেশ ও জাতির জন্য কাজ করতে হবে। কেউ যদি অন্যায় করে তাদের ছাড় দেওয়া হবে না। শাস্তির আওতায় এনে দৃষ্টান্ত তৈরি করা হবে।
মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া বলেন, আমরা যখন রাস্তায় বের হই একটু ভাঙা দেখলেই বলি দেশের উন্নয়ন হয়নি। অথচ ওই রাস্তাটি সরকার তৈরি করেছে, সরকারি হাসপাতালগুলোয় ফ্রি চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে, গরিব, বিধবা, বয়স্কভাতা দিচ্ছে সরকার।
তিনি বলেন, মাত্র ১০ থেকে ১২ টাকা বেতনে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সুযোগ করে দিচ্ছে সরকার। ঢাকা শহরের দু-চারটি বাদে সব বেসরকারি স্কুলের বেতন সরকার দেয়। অথচ সে বিষয়ে কেউ কথা বলে না। এর মূল অর্থের যোগানদাতার ভূমিকায় জাতীয় রাজস্ব বোর্ড।
রাজস্ব না এলে উন্নয়ন কি করে হবে উল্লেখ করে এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, দেশে রাজস্ব আদায় কম হলে ব্যাংক ঋণ বা সঞ্চয়পত্র থেকে ঋণ নিতে হবে সরকারকে। কিন্তু সঞ্চয়পত্রের সুদহার অনেক বেশি। আবার বিদেশ থেকে ঋণ নিলেও বড় অঙ্কের সুদ গুণতে হবে। আমাদের রাজস্ব বাড়াতে হবে, রাজস্ব না এলে উন্নয়ন কি করে হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ