ঢাকা, মঙ্গলবার 5 March 2019, ২১ ফাল্গুন ১৪২৫, ২৭ জমাদিউস সানি ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

বড় দরপতনে দুই বাজারের সবকটি মূল্যসূচক কমেছে

স্টাফ রিপোর্টার: বড় দরপতনে দেশের দুই শেয়ারবাজারের সবকটি মূল্যসূচক কমেছে। সপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যদিবসে গতকাল দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) এবং অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) বড় দরপতনে শেষ হয়েছে দিনের লেনদেন।
গতকাল সোমবার দুই বাজারেই ব্যাংক, বীমা, আর্থিক খাতসহ সবকটি খাতের সিংহভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম কমেছে। ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া ২২৭টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দরপতনের তালিকায় নাম লিখিয়েছে। বিপরীতে দাম বেড়েছে ৭৩টির। আর অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৩টির দাম।
খাতভিত্তিক তথ্য পর্যালোচনায় দেখা যায়, শেয়ারবাজারের প্রাণ হিসেবে পরিচিত ব্যাংক খাতের ১৭টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার দাম কমেছে। বিপরীতে দাম বেড়েছে মাত্র ৬টির। আর্থিক খাতের ১৪টির শেয়ার দাম কমেছে এবং দাম বেড়েছে ৫টির।
শেয়ারবাজারের উত্থান-পতনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখা অন্য খাতগুলোর মধ্যে প্রকৌশলের ২৬টির দাম কমেছে। বিপরীতে দাম বেড়েছে ৫টির। জ্বালানি খাতের ১৪টি কোম্পানির শেয়ারের দাম কমেছে এবং বেড়েছে ৪টির। বীমা খাতের ২৯টির শেয়ার দাম কমেছে এবং বেড়েছে ১৪টির। ওষুধ খাতের ২৪টির শেয়ার দাম কমেছে এবং বেড়েছে ৭টির।
গুরুত্বপূর্ণ খাতের বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার দাম কমায় ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় ৪০ পয়েন্ট কমে ৫ হাজার ৬৮২ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। অপর দুটি মূল্যসূচকের মধ্যে ডিএসই শরিয়াহ্ সূচক আগের দিনের তুলনায় ৮ পয়েন্ট কমে ১ হাজার ৩০৯ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। আর ডিএসই-৩০ আগের দিনের তুলনায় ১০ পয়েন্ট কমে ১ হাজার ৯৯১ পয়েন্টে অবস্থান করছে।
মূল্যসূচক ও বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম কমলেও ডিএসইতে লেনদেনের পরিমাণ আগের কার্যদিবসের তুলনায় কিছুটা বেড়েছে। দিনভর ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৬৮২ কোটি ১ লাখ টাকা। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয় ৬৬২ কোটি ২৭ লাখ টাকা। সে হিসেবে আগের কার্যদিবসের তুলনায় লেনদেন কমেছে ১৯ কোটি ৭৪ লাখ টাকা।
টাকার অঙ্কে এদিন ডিএসইতে সব থেকে বেশি লেনদেন হয়েছে মুন্নু সিরামিকের শেয়ার। কোম্পানিটির ৯০ কোটি ৮১ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। লেনদেনে দ্বিতীয় স্থানে থাকা ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশনের ৫২ কোটি ১০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। ৩৩ কোটি ৩০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনে তৃতীয় স্থানে রয়েছে বাংলাদেশ সাবমেরিন কেবলস। লেনদেনে এরপর রয়েছে- স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যাল, প্রিমিয়ার ব্যাংক, ফরচুন সুজ, সিঙ্গার বাংলাদেশ, ন্যাশনাল টিউবস, অলিম্পিক ইন্ডাস্ট্রিজ এবং আলিফ ইন্ডাস্ট্রিজ।
অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সার্বিক মূল্যসূচক সিএসসিএক্স ৪৭ পয়েন্ট কমে ১০ হাজার ৫৫৫ পয়েন্টে অবস্থান করছে। বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ২১ কোটি ৮ লাখ টাকা। লেনদেন হওয়া ২৩৩টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ৫৭টির দাম বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ১৪৩টির। আর দাম অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৩টির।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ