ঢাকা, মঙ্গলবার 5 March 2019, ২১ ফাল্গুন ১৪২৫, ২৭ জমাদিউস সানি ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

হাইকোর্টের নির্দেশে না’গঞ্জ সদর ওসি কামরুল প্রত্যাহার

নারায়ণগঞ্জ সংবাদদাতা : উচ্চ আদালতের নির্দেশে নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. কামরুল ইসলামকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। সোমবার (৪ মার্চ) হাইকোর্টের এক নির্দেশে তাকে প্রত্যাহার করে নেয়া হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করে জেলা পুলিশের বিশেষ শাখার কর্মকর্তা (ডিআইও-২) মো. সাজ্জাদ রোমন বলেন, আমরাও এ বিষয়ে শুনেছি। হাইকোর্টের নির্দেশে তাকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।
জানা গেছে, গত বছরের ৭ মার্চ নারায়ণগঞ্জ ডিবি পুলিশ সদর থানার এএসআই মোহাম্মদ সরওয়ার্দীর বাসা থেকে ৫০ হাজার পিস ইয়াবা ও পাঁচ লাখ টাকা উদ্ধার করে। পরে এ ঘটনায় মামলা হয়। ওই মামলার আসামী পুলিশ সদস্য আসাদুজ্জামান ও মোহাম্মদ সরওয়ার্দী আদালতে  স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়ে বলেন, এটি তারা নারায়ণগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার নির্দেশে করেছেন। তার নির্দেশেই টাকা ও ইয়াবা রেখে আসামীদের ছেড়ে দেয়া হয়। এ বিষয়ে গত ২০ ফেব্রুয়ারি বিপুল পরিমাণ মাদক ও টাকাসহ ডিবি পুলিশের হাতে গ্রেফতার হওয়া কনস্টেবল আসাদুজ্জামানের জামিন শুনানিকালে মাদক চোরাচালানের সাথে সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. কামরুল ইসলাম, পিপিএম এর সম্পৃক্ততায় বিস্ময় প্রকাশ করেন হাইকোর্ট। পাশাপাশি বিপুল পরিমাণ ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার হওয়ার ঘটনায় দুই পুলিশ সদস্যের ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে দেয়া স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দীতে এই মাদক মামলার সাথে ওসি কামরুলের সম্পৃক্ততা থাকা সত্বেও তাকে আসামী না করায় অবাক হন হাইকোর্ট। পরে গত ২৫ ফেব্রুয়ারি মামলায় তদন্ত কর্মকর্তা নারায়ণগঞ্জ সিআইডির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নাজিমউদ্দিন আজাদকে তলব করেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে আগামী ৪ মার্চ স্বশরীরে হাজির হয়ে মামলার তদন্তের অগ্রগতির বিষয়ে ব্যাখ্যা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।
অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ
নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় একটি পুকুর থেকে শিকলে বাঁধা অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। লাশটির একটি পা ও কোমড়ে শিকল বাঁধা ছিল বলে জানিয়েছে পুলিশ। সোমবার (৪ মার্চ) সকালে ফতুল্লার পাগলা মেরি এন্ডারসনের সামনে একটি পুকুর থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। পরে ময়না তদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছে পুলিশ। নিহতের পড়নে লাল টিশার্ট ও গেঞ্জির কালো কাপড়ের থ্রি কোয়াটার প্যান্ট রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ মো. মঞ্জুর কাদের জানান, লাশের পরিচয় পাওয়া গেলে ও ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে পেলে মৃত্যুর কারণ জানা যাবে। তবে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, যেহেতু ওই ব্যাক্তির বাম পা থেকে কোমর পর্যন্ত শিকল দিয়ে বাঁধা ও তিনটি তালা লাগানো ছিল সে হিসেবে তিনি পাগল হয়ে থাকতে পারেন। তবে পরিচয় জানার চেষ্টা চলছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ