ঢাকা, মঙ্গলবার 5 March 2019, ২১ ফাল্গুন ১৪২৫, ২৭ জমাদিউস সানি ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

ফেব্রুয়ারি মাসে রাজনৈতিক সন্ত্রাস

মুহাম্মদ ওয়াছিয়ার রহমান : [দুই]
১৮ ফেব্রুয়ারি ঢাকার জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগ স্থগিত কমিটির সভাপতি তরিকুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক জয়নুল আবেদীন রাসেল গ্রুপের মধ্যে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে দৈনিক সমকালের সাংবাদিক লতিফুল ইসলাম, দৈনিক সংবাদের রাকিব ইসলাম, বিডি ২৪ প্রতিনিধি সানাউল্লাহ ফরহাদ, খবরপত্রের সোহাগ রাসিফ, জবি ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি হাসান আহমেদ খান, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক কাওছার, কর্মী আসাদুজ্জামান, আনিসুর রহমান, হাবিবুর রহমান শুভ, জুয়েল, জিয়াউল হক, মাহবুবুর রহমান রনি, মহিউদ্দিন অনি, শেখ মেহেদী আল-হাসান, ইমরান, অপি, ইমরুল নিয়াজ, টুটুল, শফিকুল ইসলাম হিমু, মিরাজ, শাকিল, মিনুন মাহফুজ, শাহরুখ আল-শোভন, সোহান, আবু মুছা রিফাত, সাজেদুল নঈম, কাজী তৈয়ব, কামরুল হাসান ও শিশিরসহ ৪০ জন আহত হয়। ঘটনায় ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি জবি শাখা বিলুপ্ত ঘোষণা করে। সিলেট এমসি কলেজে ছাত্রলীগ দু’গ্রুপের সংঘর্ষে ফটো সাংবাদিক সমকালের ইউসুফ আলী, ভোরের কাগজের অসমিত অভি, ভোরের কাগজের মিঠুন দাস জয় ও সিলেটের শুভ প্রতিদিনের কাওছার আহমেদ আহত হয়। ১৯ ফেব্রুয়ারি কুমিল্লার দেবিদ্বারে সাহারপাড়া গ্রামে নববধূকে বৌভাত অনুষ্ঠান থেকে তুলে নেয়ার চেষ্টার অভিযোগে ছাত্রলীগ জুনাব আলী ডিগ্রি কলেজ শাখার বিলুপ্ত কমিটির সভাপতি ইসমাইল হোসেনকে আটক করে পুলিশ। গত ৮ ফেব্রুয়ারি ইসমাইল হোসেনসহ ৫০-৬০ জন হামলা করে নববধূ ফাতেমা আক্তারকে তুলে নেয়ার চেষ্টা করে।
২৩ ফেব্রুয়ারি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগ সিক্সটি নাইন গ্রুপ ও উল্কা গ্রুপের মধ্যে শাহজালাল হলের সামনে এক সংঘর্ষে শামীম, অভয়, আনিস, অর্নব ইসলাম, ধ্রুব, ইমাম, মাজেদুল ইসলাম, মামুন ইসলাম, সৌরভ তালুকদার, মিলন ও সাদ্দামসহ ১৫ জন আহত হয়। খুলনার ডুমুরিয়ায় চুকনগর দিব্যপল্লী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ইভটিজিং করার দায়ে ছাত্রলীগ চুকনগর ডিগ্রি কলেজের সাংগঠনিক সম্পাদক আহমেদ রনিকে এক বছরের কারাদ- দেয় ভ্রাম্যমাণ আদালত। ২৪ ফ্রেব্রুয়ারি সিলেটের আম্বরখানায় ছাত্রলীগ দু’গ্রুপের সংঘর্ষে সাহেদ আহমেদ খুন এবং ওসামা, লিমন ও মামুনসহ ৪ জন আহত হয়। ২৮ ফেব্রুয়ারি টাঙ্গাইল মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে বঙ্গবন্ধু হলের ২১৪নং কক্ষ থেকে ২টি পিস্তল ও ১টি ম্যাগজিন উদ্ধার করে পুলিশ। কক্ষটি ছাত্রলীগ ভাবি শাখা যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রাজিব আহমেদ, মাহমুদ ইমরান রাব্বি, সাংগঠনিক সম্পাদক জুবায়ের রহমান মিশু ও শরীফ ভূঁইয়ার। ২৮ ফেব্রুয়ারি চট্টগ্রাম সরকারি মহসিন কলেজে ছাত্রলীগ দু’গ্রুপের সংঘর্ষে ইমাদ নামে একজন আহত হয়। ছাত্রলীগ সালাহ উদ্দিন গ্রুপ ও মিজান গ্রুপের মধ্যে এই সংঘর্ষ হয়।
যুব লীগ : ৫ ফেব্রুয়ারি নোয়াখালীর চাটখিলে পৌর যুবলীগ নেতা রবিউল হক রবিনকে ১টি দেশী এলজি ও ২ রাউন্ড কাতুর্জসহ আটক করে পুলিশ। ১০ ফেব্রুয়ারি নীলফামারীর সৈয়দপুরে পুলিশের নামে ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে যুবলীগ নেতা মোতাহার হোসেন। নিজে পুলিশের পরিচয় দিয়ে জনৈক ফিরোজের নামে ওয়ারেন্ট আছে বলে দাবী করে। ১৭ ফেব্রুয়ারি ঝালকাঠি সদরের চৌপালা বাজার থেকে যুবলীগ নথুল্লাবাদ ইউনিয়নের ১০নং ওয়ার্ড সভাপতি কাওছার সরকারকে হত্যা মামলায় আটক করে পুলিশ। গত ২০১৬ সালের ১৩ ডিসেম্বর মানপাশা বাজোরের নৈশ প্রহরী হারুণ সরদার হত্যা মামলার আসামী কাওছার সরদার।
স্বেচ্ছাসেবক লীগ : ৬ ফেব্রুয়ারি বগুড়ার ধুনটে উপজেলা চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী ও সাবেক আওয়ামী লীগ নেতা মাহমুদুল হক বাচ্চুকে মারধর করে স্বেচ্ছাসেবক লীগ। সতন্ত্র প্রার্থী হাতে চাওয়ায় তাকে মারপিট করা হয়। 
বিএনপি : ১২ ফেব্রুয়ারি নাটোরে বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা এডভোকেট রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করলে আদালত তার জামিন নামঞ্জুর কর জেল হাজতে পাঠায়। ১৭ ফেব্রুয়ারি খুলনার পাইকগাছায় উপজেলা বিএনপির আহবায়ক ডাঃ আব্দুল মজিদ, যুগ্ম আহবায়ক শাহাদাৎ হোসেন ডাবলু, যুগ্ম-আহবায়ক সরদার আব্দুল মতিন, মফিজুল ইসলাম টাকু, আবু মুছা সরদার, ওয়াজেদ আলী, ছাত্রদল নেতা আবু তৈয়ব ও ইকবাল শেখ আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করলে আদালত তাদের জামিন নামঞ্জুর করে জেল হাজতে পাঠায়। ১৮ ফেব্রুয়ারি ঢাকায় বিএনপির বিশেষ সম্পাদক ড. আসাদুজ্জামান রিপন আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করলে আদালত তার জামিন নামঞ্জুর করে জেল হাজতে পাঠায়। চট্টগ্রাম জেলা যুগ্ম-সম্পাদক আলী আব্বাসসহ জেলা ও মহানগর বিএনপির ৫৩ নেতা-কর্মী আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করলে আদালত তাদের জামিন নামঞ্জুর করে জেল হাজতে পাঠায়। হবিগঞ্জ জেলা বিএনপি নেতা জি.কে গউসসহ ১৪ জন নেতা-কর্মী আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করলে আদালত তাদের জামিন নামঞ্জুর করে জেল হাজতে পাঠায়। টাঙ্গাইলের গোপালপুরের ১০ বিএনপি নেতা-কর্মী আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করলে আদালত তাদেরও জামিন নামঞ্জুর করে জেল হাজতে পাঠায়। ২৮ ফেব্রুয়ারি ঢাকায় বিএনপির এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয় দলীয় শৃংখলা ভঙ্গের দায়ে বগুড়া সদর উপজেলা বিএনপি সভাপতি মাফতুন আহমেদ খান রুবেল, মাগুরার মোহাম্মদপুর উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম খান বাচ্চু, সিরাজগঞ্জের চৌহালী উপজেলা বিএনপি নেতা মাহফুজা খাতুন ও মেজর (অব.) আব্দুল্লাহ আল-মামুনসহ সুনামগঞ্জ, পঞ্চগড় এবং পিরোজপুর থেকে ১৩ জনকে বহিস্কার করা হয়। ঢাকার বিএনপির এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয় বগুড়া জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মীর শাহ আলম, শিবগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এস.এম তাজুল ইসলাম, পাবনা জেলা সহ-সভাপতি ও ফরিদপুর উপজেলা সভাপতি জহুরুল ইসলাম বকুল, সহ-সভাপতি নাসরিন পারভীন মুক্তি, ভাঙ্গুরা উপজেলা বিএনপির যুগ্ম-সম্পাদক আনিসুর রহমান লিটন এবং জোসনা পারভীন দলীয় সিদ্ধান্ত অমান্য করে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে অংশ গ্রহন করার তাদের বহিস্কার করা হয়।
ছাত্রদল : ৬ ফেব্রুয়ারি বরিশাল শেরে-বাংলা মেডিকেল কলেজের ৩ ইন্টার্ন ডাক্তার ও ছাত্রদল কলেজ সভাপতি রাফসান জানি আবির, সাধারণ সম্পাদক আবু তালহা ও সহ-সভাপতি মাহফুজুর রহমান শিমুলকে ছাত্রলীগ ধরে পুলিশে সোপর্দ করে। ৭ ফেব্রুয়ারি জামালপুরের সরিষাবাড়ী উপজেলা ছাত্রদল সাধারণ সম্পাদক আলীমকে আটক করে পুলিশ। ২১ ফেব্রুয়ারি কক্সবাজার জেলার রামু থেকে পুলিশ ছাত্রদল সাবেক জেলা সাধারণ সম্পাদক হাবিব উল্লাহকে আটক করে। 
জামায়াত : ২৪ ফেব্রুয়ারি যশোরের চৌগাছা পৌর জামায়াত আমীর মাওলানা আব্দুল খালেক, পাতিবিলি ইউনিয়ন জামায়াত সেক্রেটারী মাওলানা মিজানুর রহমান, জামায়াত নেতা মাওলানা আব্দুল লতিফ, মাওলানা আব্দুর রহমান, আবু বক্কর সিদ্দিক ও কর্মী জাহিদুল ইসলামসহ ৭ জন আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করলে আদালত তাদের জামিন নামঞ্জুর করে জেল হাজতে পাঠায়। 
২০ দল : ৪ ফেব্রুয়ারি যশোর চৌগাছায় ২০ দলীয় জোটের ২২ নেতা-কর্মী আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করলে আদালত তাদের জামিন নামঞ্জুর করে জেল হাজতে পাঠায়। হাজতে যাওয়া নেতা-কর্মীরা হলো- জামায়াতের অধ্যাপক মাওলানা আব্দুর রহমান, কামাল আহমেদ, ইমদাদুল হক, অধ্যাপক মাওলানা নুরুজ্জামান, খতিব মাওলানা আলী আকবর, মাওলানা আবু সাঈদ, মাওলানা গিয়াস উদ্দিন, এনামুল হক, জাহাঙ্গীর আলম, আনিসুর রহমান, তোফাজ্জল হোসেন, শাহ আলম ও মিজানুর রহমান এবং বিএনপির জহুরুল ইসলাম, বি.এম আজিম উদ্দিন, জাফর ইকবাল, শিমুল হোসেন, জসিম উদ্দিন ও সোহেল রানাসহ ২২ জন।
জাপা : ১৪ ফেব্রুয়ারি খুলনার খানজাহান আলী থানা জাতীয় পার্টির যুগ্ম-আহবায়ক মোল্লা কামরুজ্জামান রজবকে গিলাতলা দক্ষিণপাড়া থেকে কলগার্ল ফাল্গুনীসহ আটক করে পুলিশে দেয় জনতা। 
বিকল্প যুবধারা : ১৩ ফেব্রুয়ারি মুন্সীগঞ্জে শ্রীনগরে বিকল্প যুবধারা উপজেলা যুগ্ম আহ্বায়ক মোস্তফাকে দেউলভোগ চৌকিদার পাড়ার গ্রামের বাড়ী থেকে আটক করে পুলিশ।
ইউপিডিএফ : ২৫ ফেব্রুয়ারি ঢাকার শেরে বাংলা নগর থেকে ইউপিডিএফ নেতা আনন্দ প্রকাশ চাকমাকে আটক করে পুলিশ। আনন্দ চাকমা সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান শক্তিমান চাকমা হত্যা মামলার আসামী। গত বছর ৩ মে রাঙ্গামাটির নানিয়ারচরে শক্তিমান চাকমাকে হত্যা করা হয়। [সমাপ্ত]

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ