ঢাকা, শনিবার 24 August 2019, ৯ ভাদ্র ১৪২৬, ২২ জিলহজ্ব ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

কোকাকোলা কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে কেন ব্যবস্থা নয়: হাইকোর্ট

সংগ্রাম অনলাইন : কোমল পানীয়ের বোতলে বাংলা শব্দের অশালীন বা বিকৃত ভাষা ব্যবহার করে বিজ্ঞাপন প্রচার করায় কোকাকোলার বিরুদ্ধে কেন ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দেয়া হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। 

আজ বৃহস্পতিবার বিচারপতি এফআরএম নাজমুল আহসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদেরের বেঞ্চ এ রুল জারি করেন। খবর, ইউএনবি’র। 

আগামী ৪ সপ্তাহের মধ্যে সংশ্লিষ্টদের রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে। আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন রিটকারী আইনজীবী মোঃ মনিরুজ্জামান রানা।

একই সঙ্গে এসব অশালীন ও বিকৃত শব্দের ব্যবহার কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না রুলে তাও জানতে চাওয়া হয়েছে।

আগামী ৪ সপ্তাহের মধ্যে তথ্যসচিব, শিল্প সচিব, সংস্কৃতি সচিব, আইন সচিব, শিক্ষা সচিব , স্বরাষ্ট্র সচিব , বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক, পুলিশের মহাপরিদর্শক, ইন্টারন্যাশনাল বেভারেজেস প্রাইভেট পরিচালককে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে। আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন রিটকারী আইনজীবী মোঃ মনিরুজ্জামান রানা।

এর আগে গত ২৭ ফেব্রুয়ারি কোকাকোলার কোমল পানীয়ের বোতলের বিজ্ঞাপনে জটিল, চরম, মাথা নষ্ট, বাবু, ঢিলা, ফাঁপর, জান, গুটি, গাব, আগুন, কড়া, অস্থির, পার্ট, প্যারা, ব্যাপক শব্দের বিকৃত ব্যবহার নিয়ে সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবী চন্দন চন্দ্র সরকার রিটটি দায়ের করেন।

আদালতে  রিটকারী আইনজীবী মনিরুজ্জামান বলেন, বাংলা ভাষার  বিকৃত ও অশালীন শব্দগুলো বোতলে বিজ্ঞাপন দিয়ে তারা প্রচার করছে। এটা আপত্তিজনক। আমরা চাই বাংলা শব্দের এই ধরণের বিকৃত ব্যবহার থেকে বিরত থাকতে। কারণ একটা শিশু দোকানে গিয়ে বলছে ‘আমাকে একটা প্যারা দেন’। ‘একটা মাথা নষ্ট দেন’। এটার তো নেগেটিভ ইম্প্যাক্ট (নেতিবাচক প্রভাব) হচ্ছে। তাই এটার ব্যবহার বন্ধ করতে হবে। এ কারণেই রিট আবেদন করা হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ