ঢাকা, শনিবার 16 March 2019, ২ চৈত্র ১৪২৫, ৮ রজব ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

শিবিরের তীব্র নিন্দা 

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে আল নূর মসজিদসহ দুটি মসজিদে জুম্মার নামাজের জন্য আগত মুসল্লিদের উপর নির্বিচারে গুলী চালিয়ে দুইজন বাংলাদেশীসহ প্রায় ৪৯ জনকে হত্যার তীব্র নিন্দা এবং গভীর  শোক জানিয়েছে বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবির।

গতকাল শুক্রবার যৌথ নিন্দা ও শোক বার্তায় ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় সভাপতি ড. মোবারক হোসাইন ও সেক্রেটারি জেনারেল সিরাজুল ইসলাম বলেন, নিউজিল্যান্ডে মসজিদে ঢুকে জুম্মার নামাজ আদায়রত মুসল্লিদের উপর নির্বিচারে গুলী বর্ষণ করে গণহত্যা চালানোর ঘটনায় আমরা গভীরভাবে মর্মাহত ও শোকাহত। এ নৃশংস হামলায় ইতিমধ্যে বাংলাদেশীসহ অন্তত ৪৯ জন নিহত হয়েছেন। আহতদের অনেকের অবস্থা আশঙ্কাজনক। একটুর জন্য এ হামলা থেকে রক্ষা পেয়েছে নিউজিল্যান্ডে সফররত বাংলাদেশ ক্রিকেট টিমের সদস্যরা। এ বর্বর ঘটনায় মুসলিম বিশ্ব ও শান্তিকামী মানুষ স্তম্ভিত। এই নৃশংস বর্বরতার নিন্দা জানানোর ভাষা আমাদের জানা নেই। এ হামলা কোন বিচ্ছিন্ন ঘটনা নয় বরং এতে মুসলিম বিদ্বেষ, বর্ণবাদ ও ফ্যাসিবাদী আচরণের বহিঃপ্রকাশ ঘটেছে অত্যন্ত নৃশংসভাবে। এ ঘটনা বিশ্বে শান্তিপ্রিয় মানুষকে ক্ষুব্ধ ও শঙ্কিত করেছে। 

 নেতৃদ্বয় বলেন, এর আগেও পরিকল্পিতভাবে ইসলামবিরোধী প্রোপাগান্ডা পরিচালনা ও মুসলমানদের উপর সন্ত্রাসী হামলা ও হেনস্থার ঘটনা ঘটেছে এবং তা ঘটে চলেছে প্রতিনিয়ত। এ অবস্থার অবসান জরুরী। এবারের ঘটনায় আহতদের উন্নত চিকিৎসার ব্যবস্থা এবং এ ঘটনায় জড়িত সন্ত্রাসীদের সর্বোচ্চ শাস্তি দাবী করছি। একইসাথে নিউজিল্যান্ডসহ সবখানে মুসলমানদের জন্য নিরাপত্তার ব্যবস্থা করার জন্য আহবান জানাচ্ছি। বিশ্ববাসী কোনভাবেই এমন নির্মম রক্তপাত দেখতে চায় না। 

শিবির নেতৃদ্বয় নৃশংস হামলায় নিহতদের রুহের মাগফিরাত ও শাহাদাতের কবুলিয়াত এবং আহতদের দ্রুত সুস্থতার জন্য মহান আল্লাহর দরবারে কায়মনোবাক্যে দোয়া করেন এবং তাদের শোকসন্তপ্ত পরিবার পরিজনের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ