ঢাকা, শুক্রবার 29 March 2019, ১৫ চৈত্র ১৪২৫, ২১ রজব ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

পুঁজিবাজার কত নিচে যেতে পারে আমি দেখতে চাই -- অর্থমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার: অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, পুঁজিবাজার কত নিচে যেতে পারে আমি দেখতে চাই। এটা আমার জন্য চ্যালেঞ্জ। আপনারা নিজেদের ওপর বিশ্বাস রাখবেন। আমার ওপর বিশ্বাস রাখবেন। বাজারের ইনডেক্স (সূচক) কত হবে তা আমি বলব না। ইনডেক্স ঠিক করে দেবে অর্থনীতি। একইসাথে শেয়ারবাজারের বিনিয়োগকারীদের যাকাত দেয়ার পরামর্শ দেন অর্থমন্ত্রী।

গতকাল বৃহস্পতিবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) আয়োজিত ‘বিনিয়োগকারী ও উদ্যোক্তা কনফারেন্স ঢাকা ২০১৯’ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন। বিএসইসির চেয়ারম্যান এম খায়রুল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিব আসাদুল ইসলাম, বিএসইসির কমিশনার অধ্যাপক হেলাল উদ্দিন নিজামী, স্বপন কুমার বালা এবং কামারুজ্জামান প্রমুখ।

আ হ ম মুস্তফা কামাল বিনিয়োগকারীদের উদ্দেশে বলেন, পুঁজিবাজার কত নিচে নামতে পারে তা আমার জন্য চ্যালেঞ্জ। আপনারা আমার ওপর বিশ্বাস রাখেন। আমার ওপর আপনারা বিশ্বাস করবেন। আবার শুধু বিশ্বাসের ওপর ভর করে বিনিয়োগ করবেন না, বুঝেশুনে বিনিয়োগ করবেন। আমরা সবাইকে বিজয়ী করবো। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বিজয়ী করবো এবং যারা বিনিয়োগ করবে তাদের বিজয়ী করবো। এই বাজারে আমরা কেউ কারও শত্রু নয়।

অর্থমন্ত্রী বলেন, আমি অবাক হয়ে গেলাম। পত্রিকায় আমার ছবি ছাপা হচ্ছে। আমার কোম্পানির শেয়ার দাম বেড়ে গেছে। আমার কোম্পানির শেয়ারের দাম বাড়লে আমার কী লাভ। কোম্পানি তো শেয়ার বিক্রি করে না। যদি বিক্রি করে সেটা ক্ষতিকর। অনেক কোম্পানি এমন আছে। আমাদের ওপর বিশ্বাস করে প্রচুর বিনিয়োগকারী বিনিয়োগ করেছেন। তাদের ওপর আস্থা রেখে আমি কিন্তু শেয়ার বিক্রি করতে পারিনি। আমার শেয়ার দাম ৩ হাজার টাকা হয়েছিল। আমি কয়েক হাজার কোটি টাকা মার্কেট থেকে নিতে পারতাম। আমি একটা শেয়ারও বিক্রি করিনি। পরবর্তীতে সিকিউরিটি এক্সচেঞ্জ কমিশন থেকে অনুমতি নিয়ে আমার সব শেয়ার বিক্রি করেছি। কিন্তু আমি চাইলে অনেক প্রফিট করতে পারতাম। এটা কিন্তু অন্যায়’ যোগ করেন সিএমসি কামালের সাবেক মালিক আ হ ম মুস্তফা কামাল।

তিনি বলেন, আমরা নিজেরা লাভবান হওয়ার জন্য মিথ্যা রটিয়ে আরেকজন ফেলো ক্লায়েন্টকে ঠকায়। নিজের পরিবারের সদস্যের মতো আরেকজন ব্যবসায়ীকে ঠকায়। এটা ঠিক না। শেয়ারবাজারে বিনিয়োগের জন্য শিক্ষা নিতে হবে। প্রথমে ঠিক করতে হবে আমরা কোথায় যাচ্ছি। এটা মাছবাজার নয়, এটা কাঁচাবাজার নয়। এ বাজার আমাদের দ্বারাই পরিচালিত। আমরাই খরিদ্দার, আমরাই বিক্রেতা। আমাদের মধ্যে সবাই ভালো আমি বলব না। এখানে কেউ কেউ আসে চিন্তা করে কীভাবে কত তাড়াতাড়ি বড়লোক হওয়া যায়। এটা কিন্তু ঠিক না।

শেয়ারবাজারের বিনিয়োগকারীদের যাকাত দেয়ার পরামর্শ দিয়ে তিনি বলেন, আপনারা যাকাত দেন না। যাকাত না দিলে বাজার কীভাবে বড় হবে। আপনাদের টাকা কীভাবে হালাল হবে। আপনারা যাকাত দেন। তিনি বলেন, লাভবান হতে কিছু কিছু মানুষ আছে কান কথা বলে। মিথ্যা কথা বলে। এটা না করে আমাদের সবাইকে মিলেমিশে লাভবান হতে হবে। অর্থনীতির সঙ্গে লাভবান অটোমেটিক্যালি হবেন। আমাদের অর্থনীতি ও পুঁজিবাজার একসঙ্গে গাঁথা। পুঁজিবাজারকে বাদ দিয়ে অর্থনীতিকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া সম্ভব না।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ