ঢাকা, বৃহস্পতিবার 17 October 2019, ২ কার্তিক ১৪২৬, ১৭ সফর ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

পবিত্র শবে বরাত পালিত

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: যথাযথ ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে রবিবার দিবাগত রাতে দেশব্যাপী পালিত হয়েছে সৌভাগ্য ও ক্ষমার রজনী পবিত্র শবে বরাত।

মসজিদে মসজিদে ওয়াজ-মাহফিল, তসবি-তাহলিম, দরুদ পাঠ ও ক্ষমা গুজারি এবং পবিত্র কোরআন পাঠ ও নফল নামাজ আদায়ের মধ্য দিয়ে ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা রাতটি অতিবাহিত করেন।

এছাড়া দান-খয়রাত ও চিরনিদ্রায় শায়ীত আপজনদের কবর জিয়ারত করে তাদের মাগফিরাত কামনা করেন স্বজনরা।   

এ রাতে মসজিদে মসজিদে দেশ ও মুসলিম উম্মাহর সুখ, শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।

শবে বরাত উপলক্ষে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদে বাদ মাগরিব থেকে কোরআন তেলাওয়াত, হামদ-নাত, ওয়াজ মাহফিল, মিলাদ ও বিশেষ মোনাজাত হয়।

জাতীয় মসজিদে ফজরের নামাজের পর আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করেন বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদের সিনিয়র পেশ ইমাম হাফেজ মাওলানা মুহাম্মদ মিজানুর রহমান।

মুসলিমদের ধর্মীয় বিশ্বাস অনুযায়ী, হিজরি সাবান মাসের ১৫ তারিখের শবে বরাতে আল্লাহ আগামী বছরের ভাগ্য নির্ধারণ করেন। এ রাতে তিনি তার সৃষ্টি জগতের সবার অতীতের কর্মকাণ্ড আমলে নিয়ে আগামী বছরের ভাগ্য লিপিবদ্ধ করেন।

ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা এ রাতে মানবজাতির জন্য স্রষ্টার অশেষ কল্যাণ কামনা করে বিশেষ নামাজ, কোরআন পাঠ, জিকির ও অন্যান্য ধর্মীয় ইবাদত পালন করেন। তারা পুরো রাতই ইবাদতের মাঝ দিয়ে অতিবাহিত করেন।

এছাড়া, এ রাতে গরিব, প্রতিবেশী, বন্ধু-বান্ধব ও স্বজনদের মাঝে মিষ্টি ও ঘরে তৈরি খাবার বিতরণ করেন।

বাংলাদেশ টেলিভিশন ও বাংলাদেশ বেতারসহ বেসরকারি টিভি ও রেডিওগুলোতে বিশেষ অনুষ্ঠানমালা প্রচার করা হয়। সেই সাথে পত্রিকাগুলোতে রাতটির গুরুত্ব নিয়ে বিশেষ নিবন্ধ প্রকাশ করা হয়।

এর আগে পবিত্র শবে বরাত উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দেন।

রাষ্ট্রপতি তার বাণীতে বলেন, মানব জাতিকে আল্লাহ তা’য়ালার বিশেষ অনুগ্রহ ও ক্ষমা লাভের অপার সুযোগ এনে দেয় পবিত্র এ রাত। ‘পবিত্র শবে বরাত সবার জন্য ক্ষমা, বরকত, সমৃদ্ধি ও কল্যাণ বয়ে আনুক, মহান আল্লাহর দরবারে এ প্রার্থনা করি।’

প্রধানমন্ত্রী তার বাণীতে বলেন, সৌভাগ্যের এ রাত মানব জাতির জন্য বয়ে আনে মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের অশেষ রহমত ও বরকত। এ রাতে তিনি ক্ষমা প্রদর্শন এবং প্রার্থনা পূরণের অনুপম মহিমা প্রদর্শন করেন। ‘পবিত্র শবে বরাতের মাহাত্মে উদ্বুদ্ধ হয়ে মানব কল্যাণ ও দেশ গড়ার কাজে আত্মনিয়োগ করার জন্য সবার প্রতি আহ্বান জানাই।’

পবিত্র শবে বরাতের রাতে ইবাদতের পর আজ অনেক মুসলমান নফল রোজা পালন করছেন। আজ সরকারি ছুটির দিন।-ইউএনবি

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ