ঢাকা, বৃহস্পতিবার 17 October 2019, ২ কার্তিক ১৪২৬, ১৭ সফর ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

পোশাক খাতের মজুরি বাড়েনি, বাস্তবে ২৬ শতাংশ কমেছে : টিআইবি

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: তৈরি পোশাক খাতের মজুরি নিয়ে মালিক পক্ষ শ্রমিকদের সঙ্গে শুভঙ্করের ফাঁকি দিয়েছে বলে অভিযোগ করেছে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি)। 

আজ মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) সকালে ধানমন্ডিস্থ টিআইবি কার্যালয়ে 'তৈরি পোশাক খাতে সুশাসন : অগ্রগতি ও চ্যালেঞ্জ' শীর্ষক একটি গবেষণা প্রতিবেদন প্রকাশ করে টিআইবি। আর তাতেই উঠে আসে এমন অভিযোগ। 

টিআইবির অভিযোগ, নতুন কাঠামোতে মজুরি বাড়েনি, উল্টো ২৬ শতাংশ কমেছে।

সংবাদ সম্মেলনের টিআইবির নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান বলেন, আইন অনুযায়ী প্রতিবছর পাঁচ শতাংশ হারে মজুরি বাড়ানোর নিয়ম রয়েছে। এ হিসেবে মজুরি বাড়েনি, বাস্তবিক অর্থে সার্বিকভাবে ২৬ শতাংশ কমানো হয়েছে।

এক পরিসংখ্যান তুলে ধরে টিআইবি জানায়, ২০১৩ সালের ঘোষিত মজুরি অনুযায়ী প্রথম গ্রেডে ছিল ৮ হাজার ৫০০ টাকা। চলতি বছরের ১৪ জানুয়ারি ঘোষিত প্রথম গ্রেডে নতুন মজুরি করা হয়েছে ১০ হাজার ৯৩৮ টাকা। কিন্তু ৫ শতাংশ ইনক্রিমেন্টসহ ২৫ ডিসেম্বর ২০১৮ সালে মজুরি হওয়ার কথা ছিল ১৩ হাজার ৩৪৩ টাকা। সেই হিসেবে মজুরি ২ হাজার ৪০৫ টাকা বা ২৮ শতাংশ কমেছে। এভাবে নতুন কাঠামোতে মজুরি সার্বিকভাবে ২৬ শতাংশ কমেছে।

এছাড়া কর্মপরিবেশের নিরাপত্তা এখনও টেকসই নয় বলেও অভিযোগ করেছে টিআইবি। 

প্রতিবেদনে গত ছয় বছরের একটি পরিসংখ্যান উপস্থাপন করে বলা হয়, এই সময়ের মধ্যে সাড়ে ১২ শ গার্মেন্ট কারখানা বন্ধ হয়ে গেছে। সেই সাথে চাকরিচ্যুত হয়েছেন প্রায় চার লাখ শ্রমিক। এদের মধ্যে মাত্র ৬৬০০ জন তাদের ন্যায্য ক্ষতিপূরণ পেয়েছেন। 

গবেষণা প্রতিবেদনটি উপস্থাপন করেন সংস্থার সহকারী প্রোগ্রাম ম্যানেজার নাজমুল হুদা মিনা ও মো. মোস্তফা কামাল।

ডিএস/এএইচ

 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ